২২, জুলাই, ২০১৯, সোমবার | | ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে বয়কটের সিদ্ধান্ত নিলেন ভারতের বিনোদন সাংবাদিকেরা

আপডেট: জুলাই ১০, ২০১৯

অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে বয়কটের সিদ্ধান্ত নিলেন ভারতের বিনোদন সাংবাদিকেরা

অবশেষে ‘ঠোঁটকাটা’ বলে সুপরিচিত, স্বজনপ্রীতি (নেপোটিজম) নিয়ে সোচ্চার বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতকে বয়কটের সিদ্ধান্ত নিলেন ভারতের বিনোদন সাংবাদিকেরা। গতকাল মঙ্গলবার প্রযোজক একতা কাপুরের সঙ্গে দেখা করে এ সিদ্ধান্ত জানিয়ে এসেছেন বিনোদন সাংবাদিকদের একটি প্রতিনিধি দল। কঙ্গনা রানাউতকে যেন বিতর্ক পিছু ছাড়তেই চাইছে না। এর আগে বেশ কয়েকজন তারকা অভিনেতা ও পরিচালকের সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন। গত রোববার তাঁর আসন্ন ছবি ‘জাজমেন্টাল হ্যায় কিয়া’র ‘ওয়াকরা সোয়াগ’ গানের টিজার লঞ্চ অনুষ্ঠানে বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের সাংবাদিক জাস্টিন রাওয়ের সঙ্গে তর্কে জড়ান এ অভিনেত্রী। এর পরই এন্টারটেইনমেন্ট জার্নালিস্টস গিল্ড অব ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে বলা হয় কঙ্গনাকে।

রোববার আর সব অনুষ্ঠানের মতোই সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের মাধ্যমেই শুরু হয় অনুষ্ঠানটি। তবে এরই মাঝে সাংবাদিক জাস্টিন রাওয়ের প্রশ্নের উত্তর দিতে অস্বীকার করেন কঙ্গনা। কঙ্গনার অভিযোগ, ‘মণিকর্নিকা : দ্য কুইন অব ঝাঁসি’ ছবিটি মুক্তির আগে টানা তিন ঘণ্টা ধরে কঙ্গনার সাক্ষাৎকার নিয়েছিলেন জাস্টিন রাও। পরে তাঁর বিরুদ্ধে, তাঁর ছবির বিরুদ্ধে বাজে প্রচার করেন তিনি। তাঁর ছবিকে ও তাঁকে ‘উগ্র জাতীয়তাবাদী’ তকমা দিয়েছিলেন ওই সাংবাদিক। কঙ্গনার অভিযোগের পরই তাঁর সঙ্গে ওই সাংবাদিকের তর্ক বাঁধে। পুরো ঘটনায় অপ্রস্তুত হয়ে পড়েন ঘটনাস্থলে উপস্থিত একতা কাপুর, রাজকুমার রাওসহ অন্যরা। বিষয়টি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন ঘটনাস্থলে উপস্থিত সিনেমার জনসংযোগের দায়িত্বে থাকা এক নারী। তবে তাতে পরিস্থিতি আরো খারাপ হয়। পরে একতা কাপুর ও রাজকুমার রাও বিষয়টি তাৎক্ষণিকভাবে সামাল দিতে চেষ্টা করেন।

এন্টারটেইনমেন্ট জার্নালিস্টস গিল্ড অব ইন্ডিয়ার বিবৃতি। ছবি : সংগৃহীত

পরে বিনোদন সাংবাদিকেরা কঙ্গনাকে ক্ষমা চাইতে বলার পরেই না চাইলে সংগঠনের পক্ষ থেকে তাঁকে বয়কটের সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো। এন্টারটেইনমেন্ট জার্নালিস্টস গিল্ড অব ইন্ডিয়ার আনুষ্ঠানিক বিবৃতিটি প্রযোজক একতা কাপুরের কাছে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, কঙ্গনার বোন রঙ্গলি চান্দেল টুইটার-বার্তায় জানিয়েছেন, সাংবাদিকদের কাছে ক্ষমা চাইবেন না তাঁর বোন। রঙ্গলি সাংবাদিকদের ‘দেশদ্রোহী’ বলে আখ্যা দিয়েছেন। বলিউডের সবাই জানেন, বোনের মতামত প্রকাশ করেন রঙ্গলি।