১৬, জুন, ২০১৯, রোববার | | ১২ শাওয়াল ১৪৪০

ইতিহাস গড়ে টাকা পাঠালেন প্রবাসীরা

আপডেট: জুন ১০, ২০১৯

ইতিহাস গড়ে টাকা পাঠালেন প্রবাসীরা

মে মাসে ১৪ হাজার ৮৩৫ কোটি টাকা বাংলাদেশে পাঠিয়ে ইতিহাস গড়লেন প্রবাসীরা। এর আগে কখনই এক মাসে প্রবাসীদের এত আয় দেশে আসেনি। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, প্রবাসী আয় সবচেয়ে বেশি এসেছে ইসলামী ব্যাংক হয়ে। এরপরে আছে ডাচ বাংলা, অগ্রণী ও সোনালী ব্যাংক।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, দেশের ব্যাংকগুলোতে চলছে ডলার সঙ্কট। এ কারণে সব ব্যাংকের বাড়তি নজর প্রবাসী আয় আনার ক্ষেত্রে। কেউ আবার ডলারের বেশি দাম দিয়েও আয় এনেছে। এতে আয় বৃদ্ধি পেয়েছে অনেক। এ ছাড়া অবৈধ চ্যানেল বা ডিজিটাল হুন্ডি বন্ধে কেন্দ্রীয় ব্যাংক নজরদারি বৈধ চ্যানেলে আয় বাড়ার অন্যতম কারণ।

চলতি বছর জানুয়ারিতে এসেছে ১৫৯ কোটি ডলার, ফেব্রুয়ারিতে ১৩১ কোটি, মার্চে ১৪৫ কোটি, এপ্রিলে ১৪৩ কোটি ও মেতে এলো ১৭৫ কোটি ৫৭ লাখ ডলার। এ অর্থবছরের (২০১৮-২০১৯) ১১ মাসে প্রবাসী আয় এসেছে এক হাজার ৫০৬ কোটি ডলার।

এ ব্যাপারে সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা এবি মির্জ্জা আজিজুল ইসলাম বলেন, এক মাসে এত বেশি প্রবাসী আয় আসার খবরটি খুবই ভালো। ঈদ উপলক্ষে প্রবাসীরা পরিবার ও স্বজনদের কাছে অধিক টাকা পাঠিয়েছেন। আশা করছি দেশের আমদানি চাহিদা মেটাতে এ আয় বড় ভূমিকা রাখবে। তবে এটি টেকসই হবে কিনা সেটি সময়ই বলে দেবে।

অগ্রণী ব্যাংকের এমডি মো. শামস-উল-ইসলাম বলেন, প্রবাসী আয়ের প্রতি আমরা জোর দিয়ে কাজ করেছি। এ কারণে রেকর্ড পরিমাণ আয় দেশে এসেছে। এর ফলে কিছুটা হলেও ডলারের সঙ্কট কমবে।