২২, জুলাই, ২০১৯, সোমবার | | ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

গায়ে ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে গোলাগুলি, সংঘর্ষ

আপডেট: জুলাই ৩, ২০১৯

গায়ে ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে গোলাগুলি, সংঘর্ষ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের মওলানা ভাসানী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হলের মধ্যে ব্যপক সংঘর্ষ চলছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলায় খাবার দোকানে ধাক্কা লাগাকে কেন্দ্র করে দুপুর দুইটার দিকে ঘটনার সূত্রপাত। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত সংঘর্ষ চলছে।

এতে উভয় পক্ষই দেশীয় অস্ত্র নিয়ে নামে। শুরু হয় ইট-পাটকেল ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। একপর্যায়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের শিক্ষার্থীরা গুলি বর্ষণ করতে শুরু করে। প্রায় ১০ রাউন্ড গুলি বর্ষন করার শব্দ পাওয়া যায়। আর ভাসানী হলের শিক্ষার্থীদের হাতে চাপাতি নিয়ে ঘুরতে দেখা যায়। এ ঘটনায় প্রায় ১০ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তাদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে প্রথমিক চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

এদিকে মারামারির এক পর্যায়ে ভিডিও করার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত এক সাংবাদিককে মারতে থাকে ভাসানী হলের ৪৪ তম আবর্তনের সিয়াম। পরে উপস্থিত সাংবাদিকরা তাকে উদ্ধার করে।

এ ঘটনায় প্রক্টরিয়াল টিমকে নিষ্ক্রিয় ভূমিকা পালন করতে দেখা গেছে। ঘটনার পর পরই প্রক্টরিয়াল টিমের তিন জন সদস্য উপস্থিত হন। কিন্তু তারা মারামারি ঠেকানোর চেষ্টা না করে উল্টো ভিডিও ধারন করতে থাকেন। প্রায় আধা ঘন্টা পর প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান ঘটনাস্থলে আসেন। এসময়ও মারামারি ঠেকানোর কোন চেষ্টাই তার মধ্যে চোখে পড়ে নি। উল্টো তাদের সামনেই চাপাতি নিয়ে ঘুরতে দেখা যায় ভাসানী হলের শিক্ষার্থীদের।