১৮, এপ্রিল, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১২ শা'বান ১৪৪০

গুলশানেও আগুন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করেছিলাম: নাঈম

আপডেট: মার্চ ২৯, ২০১৯

গুলশানেও আগুন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করেছিলাম: নাঈম

রাজধানীর বনানীর কামাল আতাতুর্ক এভিনিউতে আকাশচুম্বী ফারুক রূপায়ণ (এফ আর) টাওয়ারে অগ্নিকাণ্ডের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে পাইপ ধরে রাখা একটি শিশুর ছবি।

অধিকাংশ মানুষ যেখানে ছবি তুলতে ব্যস্ত ছিল সেখানে যেন ব্যতিক্রম শিশুটি। অনেকে ফেসবুকে শিশুটির ছবি শেয়ার দিয়ে তার কাজের প্রশংসা করেছেন। কিন্তু শিশুটির পরিচয় ছিল অজানা। অবশেষে আজ শুক্রবার জানা গেলে তার নাম নাঈম ইসলাম।

শুক্রবার সকালে নাঈম আসে এফ আর টাওয়ারের সামনে। তাকে দেখে চিনতে পেরে তার সঙ্গে কথা বলার জন্য ভিড় করেন গণমাধ্যমকর্মী ও উপস্থিত লোকজন।
নাঈম জানায়, সে বাবা-মা সহ কড়াইল বস্তিতে থাকে। পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ছে সে। তার বাবা ডাব বিক্রি করেন।
বৃহস্পতিবার নাঈম এফ আর টাওয়ারের সামনে কেন এসেছিল জানতে চাইলে নাঈম বলে, আগুন লাগছে শুনে ছুটে আসি। এসে দেখি পানির পাইপ ফেঁটে পানি বের হচ্ছে। তখন নিজ তাগিদে পাইপ হাত দিয়ে ধরে রাখি। আর আল্লাহর কাছে দোয়া করছিলাম যেন আগুন তাড়াতাড়ি নিভে যায়।

নাঈম আরও জানায়, ফায়ার সার্ভিসকে আগুন নিয়ন্ত্রণে এর আগেও সাহায্য করেছিল সে। গুলশানে একটি বড় অগ্নিকাণ্ডের সময় (ঠিক মনে করতে পারে নি) পাইপ দিয়ে পানি ছড়িয়ে দিতে সাহায্য করেছিল সে।

নাঈম জানায়, গুলশানে সে সময় উদ্ধারকারীদের সঙ্গে কাজ করেছিল সে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার পর একজন তাকে টাকা দিতে চেয়েছিল কিন্তু সে টাকা নেয়নি। টাকা নিলে ঘুষ খাওয়া হয়ে যাবে টাকা নেয়নি সে। বড় হয়ে পুলিশ অফিসার হতে চায় বলে জানায় নাঈম।