১৮, এপ্রিল, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১২ শা'বান ১৪৪০

ছিনতাই করতে গিয়ে আটক তিন জাবি শিক্ষার্থী

আপডেট: মার্চ ৩০, ২০১৯

ছিনতাই করতে গিয়ে আটক তিন জাবি শিক্ষার্থী

একji পথচারীকে আটকে ছিনতাইয়ের চেষ্টাকালে উপস্থিত লোকজনের গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) তিন ছাত্র। তাদেরকে উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসা কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। ছিনতাই চেষ্টার অভিযোগে প্রক্টর বরারব অভিযোগপত্র দিয়েছে ওই পথচারী।

শনিবার ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেন সংলগ্ন পানির পাম্প এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন- নাটক ও নাট্যতত্ত্ব বিভাগের ৪৪তম ব্যাচের সঞ্জয় ঘোষ, ভূতাত্ত্বিক বিজ্ঞান বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের রায়হান পাটোয়ারি এবং সরকার ও রাজনীতি বিভাগের ৪৫তম ব্যাচের আর রাজি। এদের মধ্যে রায়হান পাটোয়ারির ওপর অন্য একটি ছিনতাইয়ের ঘটনায় দুই বছরের বহিষ্কারাদেশ রয়েছে।

জানা যায়, ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বোটানিক্যাল গার্ডেন সংলগ্ন সড়ক দিয়ে ঢাকার উদ্দেশে ক্যাম্পাসের বিশমাইল এলাকার শ্বশুর বাড়ির কোয়ার্টার থেকে যাচ্ছিলেন এক পথচারী। পথিমধ্যে তাকে আটক করে ওই শিক্ষার্থী। পরে তাকে সড়ক থেকে জিম্মি করে পানির পাম্প সংলগ্ন ঝোঁপে নিয়ে গিয়ে ছিনতাইয়ের চেষ্টা চালায়।

এসময় পথচারীকে দিয়ে বাড়িতে ফোন কলের মাধ্যমে ১ লাখ টাকা দাবি করে ছিনতাইকারীরা। তিনি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানিয়ে মোবাইল ও মানিব্যাগ ছিনতাইয়ে বাধা দিলে তাদের সাথে ধস্তাধস্তির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে ধস্তাধস্তির শব্দ শোনে সড়ক থেকে উপস্থিত কয়েকজন পথচারী ঘটনাস্থলে গেলে দুই জন ছিনতাইকারী পালিয়ে যায়। বাকি তিনজনকে লোকজন হাতেনাতে ধরে ফেলে। ঘটনাস্থল থেকে নিরাপত্তা শাখার কর্মকতারা উদ্ধার করে বিশ্ববিদ্যালয়ের চিকিৎসাকেন্দ্রে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে নিরাপত্তা শাখায় নিয়ে আসেন।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ফিরোজ উল হাসান বলেন, অভিযুক্তরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ছিনতাইয়ের চেষ্টার কথা স্বীকার করেছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শৃঙ্খলা বিধি অনুযায়ী অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।