১৮, জুন, ২০১৯, মঙ্গলবার | | ১৪ শাওয়াল ১৪৪০

পাঞ্জাবকে ১৭১ রানের বড় লক্ষ্য বেধে দিয়েছে চেন্নাই

আপডেট: মে ৫, ২০১৯

পাঞ্জাবকে ১৭১ রানের বড় লক্ষ্য বেধে দিয়েছে চেন্নাই

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের শেষ চারে ওঠার নেই বললেই চলে। বরং, ৮ দলের পয়েন্ট তালিকায় এখন তারা রয়েছে একেবারে তলানীতে। তবে, সুক্ষ হিসেবের তারে এখনও ঝুলছে তাদের ভাগ্য। চন্ডিগড়ে আজ যদি তারা চেন্নাইকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে দিতে পারে এবং কলকাতা যদি শেষ ম্যাচে বাজেভাবে হেরে যায়, তাহলে হয়তো রান রেটের ব্যবধানে চতুর্থ দল হিসেবে তাদের শেষ চারে ওঠার সুযোগ থাকবে।

তবে আপাতত তাদের সে আশা তাদের সুদুর পরাহত। কারণ রানরেটেই অনেক পিছিয়ে তারা। তবুও শেষ চেষ্টা করে দেখতে দোষ কি! এ কারণে চন্ডিগড়ে নিজেদের মাঠেই তারা আজ আতিথেয়তা দিয়েছে চেন্নাই সুপার কিংসকে।

এই ম্যাচে শুরুতে টস জিতে চেন্নাইকে ব্যাটিংয়ের জন্য পাঠান পাঞ্জাব অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে স্বাগতিকদের সামনে ১৭১ রানের বড় লক্ষ্য বেধে দিয়েছে চেন্নাই ব্যাটসম্যানরা। প্রোটিয়া অধিনায়ক ফ্যাফ ডু প্লেসির ৫৫ বলে ৯৬ রানের ঝড়ের ওপর ভর করে এই চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে তোলে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারান শেন ওয়াটসন। ১১ বলে তিনি করেন ৭ রান। দলীয় ৩০ রানে প্রথম উইকেট পড়ার পর জুটি বাধেন ডু প্লেসি এবং সুরেশ রায়না। এ দু’জনের ব্যাটে গড়ে ওঠে ১২০ রানের বিশাল এক জুটি।

৩৮ বলে ৫৩ রান করে এ সময় আউট হন রায়না। ৫টি বাউন্ডারির সঙ্গে ২টি ছক্কার মার মারেন তিনি। দলীয় ১৬৩ রানের মাথায় আউট হন ডু প্লেসি। মাত্র ৪ রানের জন্য হলেন সেঞ্চুরি বঞ্চিত। ৫৫ বলের ঝড়ে তিনি মেরেছেন ১০টি বাউন্ডারি এবং ৪টি ছক্কার মার।

এছাড়া শেষ দিকে ১২ বলে ১০ রান করে অপরাজিত থাকেন ধোনি। আম্বাতি রাইডু এবং কেদার যাদবও আউট হয়ে ফিরে যান সাজঘরে। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে ১৭০ রান করে চেন্নাই সুপার কিংস।

জবাব দিতে নেমে ঝড়ো সূচনা করে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবও। মাত্র ৪.৫ ওভারেই তারা উদ্বোধনী জুটিতে তুলে ফেলে ৬০ রান। টর্নেডোর গতিতে ব্যাটিং করছেন লোকেশ রাহুল। এ রিপোর্ট লেখার সময় ২০ বলে তিনি অপরাজিত ছিলেন ৫৪ রানে। ১৯ বলে তিনি পূরণ করেন হাফ সেঞ্চুরি। ৫টি বাউন্ডারি এবং ছক্কা মেরেছেন তিনি। অন্যপ্রান্তে তার দিকে শুধু চেয়ে আছে ক্রিস গেইল। যিনি কি না মাত্র ৯ বল খেলে নিয়েছেন ৫ রান।