২৩, জুলাই, ২০১৯, মঙ্গলবার | | ২০ জ্বিলকদ ১৪৪০

বরিশালে ধর্ষকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

আপডেট: জুন ২৬, ২০১৯

বরিশালে ধর্ষকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

বরিশালে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামি আবু বক্কর ছিদ্দিককে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ২ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল। বুধবার দুপুরে আসামীর উপস্থিতিতে ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবু শামীম আজাদ এই রায় ঘোষণা করেন। দন্ডপ্রাপ্ত আবু বক্কর ছিদ্দিক বরিশাল সদর উপজেলার লামছড়ি এলাকার বাসিন্দা।

রায়ে আরও বলা হয়, ধর্ষণের ফলে জন্মগ্রহণকারী শিশুপুত্র মো. কাওছার তার মায়ের তত্ত্বাবধানে থাকবে। তার ভরণ-পোষণের ব্যয় ২১ বছর পূর্তি না হওয়া পর্যন্ত রাষ্ট্র বহন করবে। তবে রাষ্ট্রকে তার ভরন-পোষন নির্ধারন করে দন্ডপ্রাপ্ত আসামীর অর্জিত সম্পদ থেকে আদায়ের নির্দেশ দেন ট্রাইব্যুনাল। শিশুটি তার মা অথবা বাবা কিংবা উভয়ের পরিচয়ে পরিচিত হওয়ার অধিকার রাখে বলে রায়ে উল্লেখ রয়েছে।

ঘটনার বিবরনে জানা যায়, ২০০৫ সালের ১৩ মে বরিশাল সদর উপজেলার লামছড়ি এলাকার জনৈক আবু বক্কর সিদ্দিক একই এলাকার লাইজু বেগম নামে এক নারীকে ধর্ষন করে। এ ঘটনায় বিলম্বে ২০০৬ সালের ২ জানুয়ারি আদালতে মামলা দায়ের করেন লাইজু বেগম। আদালত মামলার অভিযোগ তদন্তের জন্য সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।

পুলিশ আবু বক্কর ছিদ্দিককে অভিযুক্ত করে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেয়। পরে ট্রাইব্যুনালে সাক্ষ্য-প্রমানে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিচারক ওই দন্ড দেন বলে জানিয়েছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পিপি অ্যাডভোকেট ফয়জুল হক ফয়েজ।