২৩, মার্চ, ২০১৯, শনিবার | | ১৬ রজব ১৪৪০

বিশ্বের যত ‘বিপজ্জনক’ সেতু !

আপডেট: মার্চ ৭, ২০১৯

বিশ্বের যত ‘বিপজ্জনক’ সেতু !

১. ইউ বিন ব্রিজ, মিয়ানমার
বিখ্যাত এই ব্রিজটি দেখলে মনে হয় এর বুঝি এখনো মেরামত চলছে! অথচ এটি বহু বছর পূর্বে তৈরি হয়েছে। পৃথিবীর বিখ্যাত একটি ট্যুরিস্ট স্পট হলো এই ব্রিজটি। হাজার হাজার মানুষ প্রতি বছর এই ভীত উদ্রেককারী ব্রিজের অনূভূতি নিতে এই স্থানটি দর্শন করে যান। পানি থেকে বেশ উপরে শুধুমাত্র পিলার দিয়ে আটকানো এই ব্রিজটির দৈর্ঘ্য প্রায় ১ কি.মি. জুড়ে।

মন্টেনেগো রেইনফরেস্ট, কোস্টারিকা মন্টেনেগো রেইনফরেস্ট, কোস্টারিকা

২. মন্টেনেগো রেইনফরেস্ট, কোস্টারিকা 
কেমন অনুভব হবে যদি আপনি কোনো ভয়ঙ্কর ঘন বনাঞ্চলের মধ্য দিয়ে উঁচু উঁচু গাছের ভিড়ে তৈরি ব্রিজ দিয়ে যাওয়ার সুযোগ পান? এমনই একটি ভয়ঙ্কর ব্রিজের খোঁজ পাওয়া গেছে কোস্টারিকাতে। যেখানে ঘন বনের মাঝখান বরাবর অনেক উঁচুতে একটি ব্রিজ বানানো হয়েছে। তবে সাবধান ভুল করে যেনো সিঁড়ির ফাঁকা অংশটুকুতে পা না দিয়ে বসেন। তবে কিন্তু মৃত্যু নির্ঘাত!

দ্য ব্রিজ অব ইমমরটালস, হুয়াং শাং চায়না
দ্য ব্রিজ অব ইমমরটালস, হুয়াং শাং চায়না

৩. দ্য ব্রিজ অব ইমমরটালস, হুয়াং শাং চায়না
যদি আপনি পাহাড়ের সবচেয়ে উঁচুতে অবস্থিত ব্রিজ দিয়ে পারাপার হওয়ার মতো যথেষ্ট সাহস থাকে তাহলে আপনি ভাগ্যবান। কারণ এতে শুধু আপনি উঁচুতে দাঁড়িয়ে পাহাড়ের সৌন্দর্য্যই পাবেন না সঙ্গে মেঘের উপর থেকে পৃথিবীটা দেখতে পারবেন! যেমন করে হয়তো ঈশ্বর আমাদের দেখেন। ঠিক তেমনি একটি ব্রীজ আছে চীনের হুয়াং শাং এ।

 ইশিমা ওহাশি ব্রিজ, জাপান ইশিমা ওহাশি ব্রিজ, জাপান

৪. ইশিমা ওহাশি ব্রিজ, জাপান 
আপনি কি আপনার গাড়ি দিয়েই একটি রোলার কোস্টার রাইড দিতে চান? তবে যদি সুযোগ হয় জাপানে যাওয়ার তবে এই ব্রিজটি উপভোগ করে আসবেন। ব্রিজটি সর্বোচ্চ উচ্চতার দৈর্ঘ্য প্রায় ১৪৪ ফিট। অত্যন্ত ভয়ঙ্কর এই ব্রিজটির গ্রেডিয়েন্ট বা নতিমাত্রা ৬ দশমিক ১ শতাংশ।

কুইপস ব্রিজ, কোস্টারিকা কুইপস ব্রিজ, কোস্টারিকা

৫. কুইপস ব্রিজ, কোস্টারিকা 
কোস্টারিকার এই অঞ্চলের মানুষগুলো এই ব্রিজটির নাম দিয়েছিলো “ডেথ ব্রিজ” এবং এটি সত্যিকার অর্থেই মৃত্যু ঝুঁকিসম্পন্ন একটি ব্রিজ। এতে বেশ বড় বড় কিছু ফাঁকা অংশ এবং যানবাহনকে জীবন ঝুঁকি পাড় করে এই ব্রিজটি দিয়েই যাতায়াত করতে হয়। কোস্টারিকার এই ব্রিজটি পৃথিবীর ভয়ঙ্কর ভীত সঞ্চারকারী ব্রিজগুলোর একটি।

পুয়েন্তে ডি উজুয়েলা, মেক্সিকো 
পুয়েন্তে ডি উজুয়েলা, মেক্সিকো

৬. পুয়েন্তে ডি উজুয়েলা, মেক্সিকো 
ব্রিজটিতে বর্তমানে গাড়ি বা ভারি যানবাহন চলাচল বন্ধ করে শুধুমাত্র পথচারীদের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে। কারণ গাড়ি নিয়ে সামান্য পথ গেলেই কেউ আর ওই পথ থেকে ফিরে আসতো না। বিশ্বের সবচেয়ে বিপজ্জনক ব্রিজ হিসেবে এটি ঘোষণা করার পরপর এটি ভ্রমণ পিপাসুদের জন্য একটি অনবদ্য ট্যুরিস্ট স্পট হয়ে উঠেছে।

ভিতিম রিভার ব্রিজ, রাশিয়া ভিতিম রিভার ব্রিজ, রাশিয়া

৭. ভিতিম রিভার ব্রিজ, রাশিয়া 
পৃথিবীজুড়ে খুব কম মানুষই আছেন যারা সত্যিকার অর্থেই এই ক্ষীণ, বরফাচ্ছাদিত ব্রিজটি পুরোপুরিভাবে পাড় হতে পেরেছেন। কারণ এই ব্রিজটি বরফাচ্ছাদিত তো বটেই তবে এর ফাঁকে ফাঁকে আছে ব্ল্যাংক বা খালি অংশ। ভুলক্রমে এই ফাঁকা অংশগুলোতে পা পড়লে সেটি খারাপ ছাড়া ভালো হবে না। বিশ্বে এটি সবচেয়ে ঝুঁকিসম্পন্ন একটি ব্রিজ হিসেবে পরিচিত।

মাউন্ট টাইটলিস, সুইজারল্যান্ড মাউন্ট টাইটলিস, সুইজারল্যান্ড

৮. মাউন্ট টাইটলিস, সুইজারল্যান্ড 
ভাবতে পারেন, ভূমি থেকে প্রায় তিন হাজার মিটার উপরে, বিখ্যাত সুইস পর্বত আল্পস এর মধ্য দিয়ে তৈরি ব্রিজ দিয়ে যেতে কেমন বোধ হবে আপনার? অত্যন্ত ভয়াবহ এই ব্রিজটি আছে সুইজারল্যান্ডে। প্রতি বছর অসংখ্য স্কাইয়ারস ও ভ্রমণপ্রিয়রা এই ব্রিজটির পথ ধরে হেটে যান। খুবই চমকপ্রদ ও ভীতিকর হলেও এটিকে  বিশ্বে সবচেয়ে ‘নিরাপদ ভীতিজনক’ ব্রিজ বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে।

ল্যাংকায়ি স্কাই ব্রিজ, মালয়েশিয়া 
ল্যাংকায়ি স্কাই ব্রিজ, মালয়েশিয়া

৯. ল্যাংকায়ি স্কাই ব্রিজ, মালয়েশিয়া 
সুউচ্চ এই ব্রিজটি অবস্থিত মালয়েশিয়ায় যেটি ভূমি থেকে প্রায় ৪০০ ফিট উপরে ঝুলে থাকা এই ব্রিজটির কর্তৃপক্ষ নাম দিয়েছে স্কাই ব্রিজ। নানা কারণে শুরু থেকেই এটি বন্ধ থাকলেও বর্তমানে ব্রিজটি সকলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়েছে।