২২, জুলাই, ২০১৯, সোমবার | | ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪০

‘বিসিএস সেবা’ চালুর দাবিতে বরিশাল নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা

আপডেট: জুলাই ৭, ২০১৯

‘বিসিএস সেবা’ চালুর দাবিতে বরিশাল নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা

দ্বিতীয় দিনের মত ক্লাস-পরীক্ষা ও পেশাগত দায়িত্ব বর্জন করে চার দফা দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে বরিশাল নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা।রোববার (৭ জুলাই) সকাল ১০টায় শেরে-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসের নার্সিং কলেজ চত্ত্বরে বিক্ষোভ শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় তারা নার্সিং পেশায় স্বতন্ত্র পেশাগত ক্যাডার সার্ভিস ‘বিসিএস সেবা’ চালুর দাবি জানান।

আন্দোলনকারীরা বলেন, বর্তমানে নার্সিং শিক্ষার্থীদের ৬ হাজার ইন্টার্ন ভাতা দেওয়া হচ্ছে। যা যুগের সাথে অসঙ্গতিপূর্ণ দাবি করে শিক্ষার্থীরা ইন্টার্ন ফি ২০ হাজার টাকায় উন্নীত করার দাবি জানান। একই সাথে স্টাইপেন্ড ২ হাজার টাকা থেকে ৫ হাজার টাকায় উন্নীত করা, সকল নার্সিং কলেজের জন্য ক্লিনিক্যাল প্রাকটিস নার্স পদ সৃষ্টি ও পূরণ করা এবং নতুন কারিকুলাম সংশোধন না করা পর্যন্ত পুরাতন কারিকুলাম বহাল রাখার দাবি জানান বিক্ষোভকারীরা।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে নার্সিং কলেজের শিক্ষার্থীরা। বরিশাল নার্সিং কলেজে প্রায় সাড়ে ৪’শ শিক্ষার্থী পড়াশুনা করছেন। সারাদেশে ১২টি সরকারী নার্সিং কলেজ রয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশ বেসিক গ্রাজুয়েট স্টুডেন্ট নার্সেস এসোসিয়েশন এর কমিটি রয়েছে ৭টি কলেজে। একারণে ঢাকা, বরিশাল, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহে গত দুদিন যাবত আন্দোলন চলছে বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন।