২৩, জুলাই, ২০১৯, মঙ্গলবার | | ২০ জ্বিলকদ ১৪৪০

জেসুসের কন্ঠে মেসির সমালোচনা

কদিন আগেই হয়ে যাওয়া কোপা আমেরিকায় ব্রাজিলকে বাড়তি সুবিধা দেয়া হয়েছে এমন অভিযোগ করেছিলেন লিওনেল মেসি। সেমি-ফাইনালে দুটি পেনাল্টি না পেয়ে দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল সংস্থার (কনমেবল) ওপর এমন অভিযোগ করেন আর্জেন্টাইন এই অধিনায়ক। তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে তুচ্ছ ঘটনায় লাল-কার্ড দেখতে হয় মেসিকে। এর পর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে যোগ দেননি বার্সেলোনা মহাতারকা। উল্টো জানিয়ে দেন, কনমেবলের দুর্নীতির অংশ হতে রাজি নন তিনি।

সাংবাদিকদের তিনি জানিয়েছিলেন, আমরা এই দুর্নীতির অংশ হতে চাই না। তারা আমাদের সঙ্গে পুরো টুর্নামেন্টে অশোভন আচরণ করেছে। দুঃখজনক হলেও সত্য দুর্নীতির কারণেই রেফারিরা ভক্তদের ফুটবল উপভোগ করতে দেয়নি। শিরোপাটি ব্রাজিলকে দেয়া হবে, আমার মনে হয় আগে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল।যদিও পাঁচবারের ব্যালন ডি’ অর জয়ী মেসির এমন বক্তব্য কনমেবল ও ব্রাজিল ফুটবল দল উড়িয়ে দেয়। এমনকি নিষিদ্ধ হতে পারেন মেসি, এমনটাও সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছিল।
সম্প্রতি ব্রাজিলিয়ান তারকা গ্যাব্রিয়েল জেসুস মেসিকে নিয়ে সমালোচনা করেছেন। দেশটির টেলিভিশন ইস্পোর্তে ইন্টারাটিভোকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, আমি মেসির কথা শুনে হতাশ ছিলাম। আমি জানি সে মেধাবী আর বিশ্বের সবচেয়ে সেরা ফুটবলারও। এই ম্যাচের জন্য আমরা কঠোর পরিশ্রম করেছি, যেমনটা তিনিও করেছেন। ফল তার পক্ষে যায়নি, তার মানে এই না যে আমদের পরিশ্রমকে অবমূল্যায়ণ করবেন।
ম্যানচেস্টার সিটির এই স্ট্রাইকার মেসির অভিযোগগুলো তুলে নেয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, এটা দুর্ভাগ্যজনক ছিল। মাথা গরম থাকার কারণেই এমনটা বলেছেন তিনি। আমরা তাকে কখনও বিতর্কিত ঘটনায় জড়াতে দেখিনি। বর্তমানে তার মাথা ঠাণ্ডা রয়েছে। আশাকরি সে নিজেই অভিযোগগুলো তুলে নেবেন।
কোপা আমেরিকায় যতবার আয়োজন করেছে ব্রাজিল, প্রতিবারই জয় পেয়েছে তারা। ২২ বছর বয়সী জেসুস বলেন, ব্রাজিলের মাটিতে টুর্নামেন্ট জয় আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ছিল।
সিএনআই/এসআই