১৬, জুন, ২০১৯, রোববার | | ১২ শাওয়াল ১৪৪০

তিলে তিলে তিলোত্তমা হতে চান নবাগত আশিক আরজু

‘আমি দেখতে তথাকথিত হিরোদের মতো নই। আমার চেষ্টা আছে, আন্তরিকতা আছে। আমার সবটুকু দিয়েই একজন ভালো অভিনেতা হতে চাই। তাই আমি অবিরাম চর্চায় আছি। তবে আমি মনে করি গোটা ব্যাপারটা নির্ভর করে দর্শকের ওপর। তারা যদি গ্রহণ করে তাহলে আমি নিয়মিত অভিনয় করে যাব।’ দর্শক বলছি চলচ্চিত্রের নবীন অভিনেতা আশিক আরজু। তার আসল নাম ইলিয়াস বিশ্বাস। ফরিদপুরের বাসিন্দা আশিক আরজু ‘আকাশের চোখে বৃষ্টি’ নামে একটি ছবিতে অভিনয় করছেন। এ ছবিতে তার বিপরীতে রয়েছেন রিয়া এবং তানিন সুবহা। ছবিটির জন্য চিত্রনাট্য লিখেছেন আনোয়ার সিরাজী এবং পরিচালনা করেছেন তৌহিদ আজাদ। আশিক আরজু বলেন, ‘রিয়া এবং তানিন সুবহার সঙ্গে কাজ করে আমার বেশ ভাল লেগেছে। তবে আমাকে নবাগত হিসেবে মা চরিত্রের অভিজ্ঞ অভিনেত্রী খালেদা আক্তার কল্পনা অনেক সহযোগিতা করেছেন। তার কাছে আমি কৃতজ্ঞ।’ এছাড়াও আশিক আরজু কাজ করছেন মিউজিক ভিডিওতে। সম্প্রতি মিউজিক ভিডিওতে সানাই এবং ইভানার বিপরীতে দেখা গেছে। চমৎকারভাবে চিত্রায়িত এই মিউজিক ভিডিওটি পরিচালনা করেছেন নৃত্য পরিচালক আজাদ। ‘ফিগার আমার দেশলাই, সারাদেশে একটি পিস নাই’ - সুদীপ কুমার দীপের কথায় গানটিতে কন্ঠ দিয়েছেন সাবরিনা সাবা এবং সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন শামীম মাহবুব। এই মিউজিক ভিডিওটিতে সানাইও কাজ করেছেন মনপ্রাণ ঢেলে দিয়ে। তার গেটআপ এবং আবেদনশীল উপস্থিতি দর্শকদের উদ্বেলিত করবে। চলচ্চিত্রে অভিনয় এবং মিউজিক ভিডিওতে কাজ করে আশিক আরজু তিলে তিলে হয়ে উঠতে চান তিলোত্তমা। তিনি অন্য একটি পেশার সঙ্গে জড়িত থাকলেও তার আন্তরিকতা এবং ভালোবাসার পুরোটাই পড়ে আছে গ্ল্যামার জগতে। এই ভালোবাসা থেকেই এক সময় তিনি এফডিসিতে যাতায়াত করতেন। সেই সময় পরিচয় হয় নৃত্য পরিচালক আজাদের সঙ্গে। সেই থেকে আশিক আরজু আজাদের সঙ্গেই আছেন। আজাদ বলেন, ‘আশিক আরজুর আন্তরিকতা ও চেষ্টাই তাকে প্রতিষ্ঠার পথে এগিয়ে নিয়ে যাবে। ছেলেটি ভালো নাচতে জানে, ভালো এ্যাকশন জানে, অভিনয়েও পরিশ্রমী হয়ে উঠছে। সুতরাং তার প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্রে সমস্যাতো হওয়ার কথা নয়। তাকে নিয়ে আমার পরবর্তী পরিকল্পনার কথাও শিগগিরই জানানো হবে। আশিক আরজুকে নিয়ে কাজ করে আমি খুবই আনন্দিত।’