২৮শে মার্চ, ২০২০ ইং, শনিবার
৪ঠা শাবান, ১৪৪১ হিজরী

‘ইপসা’র শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ

প্রকাশিত: ৯:৩৫ অপরাহ্ণ , জানুয়ারি ২২, ২০২০

‘ইপসা’র শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ

টেকনাফ প্রতিনিধি: টেকনাফে ৩০জন হতদরিদ্র শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ করেছে ইপসা। ২২ জানুয়ারী (বুধবার) বেলা ১২ টায় শাহপরীর দ্বীপ হাজী বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে, প্রধান শিক্ষক রেজাউল করিম এর সভাপতিত্ব অনুষ্ঠিত সভায় এসব উপকরণ বিতরণ করা হয়। ‘ইপসা’র প্রকল্প সমন্বয়কারী রোকন উদ্দিন আহমেদের সঞ্চালনায়, মোহাম্মদ কেফায়েত উল্ল্যাহর কোরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে শুরু হওয়া উক্ত অনুষ্ঠানে এতে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা ফেরদৌস আহমদ জমিরী।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি, টেকনাফ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাবেদ ইকবাল চৌধুরী, প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের প্রকল্প ব্যবস্থাপক স্বাগত ধর, শিশু সুরক্ষা কর্মকর্তা মোঃ জাহিদ হোসেন, ইপসা’র সহকারী পরিচালক ও হেড অব রোহিঙ্গা রেসপন্স প্রোগ্রাম মোঃ শহিদুল ইসলাম, ফোকাল পারসন যীশু বড়–য়া, সাবরাং ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মোঃ নুরুল আমিন ও মহিলা সদস্য মোছাম্মৎ ছেনোয়ারা বেগম। অন্যান্যদের মধ্যে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন টেকনাফ সাংবাদিক ফোরাম’র সাধারণ সম্পাদক মাওলানা জুবাইর, প্রচার ও ক্রীড়া সম্পাদক, মোঃ আরাফাত সানি এবং শাহপরীর দ্বীপস্থ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকবৃন্দ যথাক্রমে- মোঃ কলিম উল্লাহ, মোঃ নুরুল আলম, মোঃ শরিফ, শশাংক মোহন পাল,শিশু সুরক্ষা কমিটির সদস্য কালা মিয়া এবং মোহাম্মদ কেফায়েত উল্ল্যাহ প্রমুখ। প্রধান অতিথি মাওলানা ফেরদৌস আহমদ জমিরী বলেন- স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন ইপসা’র কর্মীবৃন্দ গৃহীত আজকের এই উদ্যোগের প্রতিটি ধাপে উপজেলা শিক্ষা বিভাগের মতামত ও পরামর্শ গ্রহণ করেছে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচন ও শিক্ষার্থী বাচাইকরণ প্রক্রিয়ায় আমাদের উপজেলা প্রশাসনের অংশগ্রহণ ছিল স্বতস্ফুর্ত। বিতরণকৃত সকল উপকরণের মাধ্যমে পুরো- বছর ব্যাপী শিক্ষাকার্যক্রমে প্রয়োজনীয় উপকরণ যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত করা সম্ভব হবে। এছাড়া তিনি অভিভাবকদের শিশু-শিক্ষার অপরিসীম গুরুত্ব সম্পর্কে অবহিত করেন।

বিশেষ অতিথি মোঃ জাবেদ ইকবাল চৌধুরী বলেন- ইপসা’র এ ধরনের উদ্যোগ আসলে প্রসংশনীয়। শিক্ষা সহায়ক উপকরণ গুলি একজন ছাত্র-ছাত্রীর জন্য প্রায় বছর ব্যাপী উপকরণ সহায়ক হিসেবে কাজ করবে। শিক্ষা থেকে ঝরে পড়া হতদরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের অনুপ্রেরনা সৃষ্টিতে এ উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য আমি ‘ইপসা’কে ধন্যবাদ জানাই। বর্তমান প্রধান মন্ত্রি শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষা উন্নয়ন বান্ধব অনেক কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। এতে ইপসা কর্তৃক গৃহীত এবং বাস্তায়িত উক্ত কার্যক্রম শিক্ষার উন্নয়নে শক্তিশালি ভূমিকা রাখবে বলে আমি মনে করছি”।

ইপসা’র সহকারী পরিচালক মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন- স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন “ইপসা”
রোহিঙ্গা ইস্যুতে অত্যন্ত সুনামের সাথে বিভিন্ন কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে আসছে। তারই ধারাবাহিকায় আজকের এ অনুষ্ঠানে আপনারা উপস্থিত থেকে আমাদের এ কার্যক্রম উৎসাহিত করছেন বলে আমরা কৃতজ্ঞ। এ ধরনের উদ্যোগ ও কার্যক্রমের ব্যাপকতা বৃদ্ধিতে আমরা আগামীতে আরো সক্রিয় থাকবে।

প্লান ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সহযোগিতায় স্থায়ীত্বশীল উন্নয়নের জন্য সংগঠন “ইপসা-(ইয়ং পাওয়ার ইন সোশ্যাল এ্যাকশন)” শিশু শ্রম ও শিক্ষা থেকে ঝরে পড়ার ঝুঁকিতে থাকা দরিদ্র ও হতদরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের মধ্যে “শিক্ষা সহায়ক উপকরণ বিতরণ” কর্মসূচী আয়োজন করেছে। “ইপসা” কর্তৃক বাস্তবায়িত ‘চিলড্রেন আর নট ফর সেল’ প্রকল্পের এটি একটি উল্লেখযোগ্য কর্মসূচী । এতে আরো বক্তব্য রাখেন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষকবৃন্দ।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।