২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, শনিবার
২৭শে জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ হিজরী

নকলে করতে সহযোগিতা না করায় পরীক্ষার্থীদের ওপর হামলা

প্রকাশিত: ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০

নকলে করতে সহযোগিতা না করায় পরীক্ষার্থীদের ওপর হামলা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধিঃ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় এসএসসি পরীক্ষা কেন্দ্রে নকল সরবরাহে অপারগতা প্রকাশ করায় প্রধান শিক্ষকসহ ১০ পরীক্ষার্থীকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে এক বহিরাগত যুবক। আহতদের মধ্যে দুই পরীক্ষার্থীকে আশংকাজনক অবস্থায়  ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

রোববার(০৯ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ওই উপজেলার গোপীনাথপুর শহীদ বাবুল উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। হামলায় আহত একই উপজেলার সৈয়দাবাদ এ. এস মনিরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলী মনসুর জানান, তাদের বিদ্যালয় থেকে এবারের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের নির্ধারিত কেন্দ্র গোপীনাথপুর শহীদ বাবুল উচ্চ বিদ্যালয়ে আজ রোববার ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা দেয়ার সময় গোপীনাথপুর গ্রামের এক বহিরাগত যুবক তাদের বিদ্যালয়ের এক পরীক্ষার্থীকে নকল সরবরাহের কথা বলে। সেই পরীক্ষার্থী এতে অপারগতা জানালে পরীক্ষা শেষে তাকে মারধর করা হয়। এরপর তিনি (প্রধান শিক্ষক) আহত ছাত্রকে নিয়ে কেন্দ্র সচিবের কাছে যান এবং বিষয়টি তাকে জানান।

এরপর তারা বাড়ি ফেরার পথে গোপীনাথপুর শহীদ বাবুল উচ্চ বিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী ও বহিরাগতরা মিলে তাদের উপর হামলা করে। এতে সৈয়দাবাদ এ. এস মনিরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও দুই মেয়ে পরীক্ষার্থীসহ ১০ জন আহত হয়।

পরে খবর পেয়ে আহতদেরকে উদ্ধার করে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে পাঠায় পুলিশ। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে আহত পরীক্ষার্থী সোনিয়া আক্তার ও সাবিকুন্নাহার তন্বীকে ঢাকায় রেফার করে কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফাইজুর রহমান জানান, দুই মেয়ের মাথা ও মুখমন্ডলে থেতলা জখম হয়েছে, যার তীব্রতা বেশি। এজন্য তাদেরকে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কসবা উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মাসুদুল আলম জানান, ঘটনাটি জানার পর এর সঙ্গে জড়িতদেরকে আইনের আওতায় আনার ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।