৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, সোমবার
৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

চীন ফেরত শিক্ষার্থীকে রংপুর হাসপাতাল থেকে ঢাকায় স্থানান্তর

প্রকাশিত: ৫:৪৫ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১০, ২০২০

চীন ফেরত শিক্ষার্থীকে রংপুর হাসপাতাল থেকে ঢাকায় স্থানান্তর

রংপুর ব্যুরো:  রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগের করোনা ইউনিটে ভর্তি চীন ফেরত
শিক্ষার্থীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার কর্মিটেলা জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। রোববার রাত ১১ টা ৫৫ মিনিটে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাপাতালে ভর্তি করা হয়। রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগের তত্ত্বাবধায়ক ডা:হুমায়ুন কবির জানান,চীন ফেরত শিক্ষার্থী আল-আমিন ইয়াংহু বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করত।রোববার সকাল ৭  টায় শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে নামে।সেখানে তার শারিরীক পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে ছেড়ে দেয়া হয়।রাত দশটায় তিনি তার নিজ বাড়ি লালমনিহাটের কালীগঞ্জে আসেন।এখানে আসার পর তার বমি এবং অন্যান্য উপসর্গ দেখা দিলে দ্রুত তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

কর্তৃপক্ষ তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগের করোনা ইউনিটে ভর্তি করেন।সোমবার সকালে আইইডিসিআরের ল্যাব টেকনিশিয়ান পংকজ দেবনাথ এর নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল রংপুরে এসে তার রক্ত লালা এবং খামের নমুনা নিয়ে চলে যান। এমতাবস্থায় তার উন্নত চিকিৎসার জন্য ১২ সদস্যের মেডিকেল বোর্ডের সুপারিশে তাকে বেলা ২টা এ্যাম্বুলেন্স যোগে ঢাকায় নেয়া হয়।

এর আগে চীন ফেরৎ আরেক শিক্ষার্থী তাশদীদ হোসেনকে রংপুর মেডিকেল হাসপাতালের আইসোলেশন বিভাগের করোনা ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।গেল শনিবার থেকে সেখানে চিকিৎসাধীন আছেন চীন ফেরৎ আরেক শিক্ষার্থী তাশদীদ হোসেন।তার শরীরের ঘাম রক্ত এবং লালার নমুনা আইইডিসিআরের ল্যাব টেকনিশিয়ান নিয়ে গেছেন। মঙ্গলবার এ বিষয়ে চূড়ান্ত রিপোর্ট দিবে আইইডিসিআর।তাশদীদের বাড়ি নীলফামারীর ডোমারের মির্জাগঞ্জ এলাকায়। এদিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা.দেবেন্দ্র নাথ সরকারকে প্রধান করে ১২ সদস্য বিশিষ্ট মেডিকেল বিশেষজ্ঞ বোর্ড গঠন করা হয়েছে।সোমবার সকালে ডা. দেবেন্দ্র নাথ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন,দুই রোগীর অবস্থা এখনও ভালো।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।