১লা এপ্রিল, ২০২০ ইং, বুধবার
৮ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

ত্বক যখন সুস্থতার আয়না

প্রকাশিত: ৪:১২ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২০

ত্বক যখন সুস্থতার আয়না

সিএনআই ডেস্ক: একটু লালচে, একটু ফ্যাকাসে বা ব্রণ ভরা ত্বক- আপনার শরীরের ওপরের আবরণ যেমনটাই হোক না কেন, এর প্রতিটি চিহ্নই আপনাকে বুঝিয়ে দেবে যে আপনি সুস্থ আছেন নাকি নেই। হয়তো প্রতিদিন আপনার ত্বকের খুব সাধারণ যে লক্ষণগুলোকে আপনি এড়িয়ে চলছেন বা অবহেলা করছেন সেগুলোই পরবর্তীতে বড় কোনো সমস্যা তৈরি করবে।

চলুন, ত্বকের নানারকম সমস্যা আর এর পেছনে থাকা কারণ সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক-

১। ত্বকে অনেক ফুসকুড়ি বা ব্রণ?

ত্বকে কিছুটা ব্রণ তো দেখা দিতেই পারে। বিশেষ করে, বয়ঃসন্ধিকালীন সময়ে কিশোর-কিশোরীরা এমন সমস্যার মুখোমুখি হতে পারেন। তবে হ্যাঁ, এই ব্রণ কিন্তু হরমোনের কারণেও দেখা দিতে পারে। বিশেষ করে লালচে আর বড় আকৃতির যে ব্রণ গাল ও চোয়ালে নারীদের পিরিয়ডকালীন সময়ে দেখা দেয়, সেটার পেছনে মূল কারণ হিসেবে কাজ করে হরমোন।

সে ক্ষেত্রে আপনার এই সমস্যাটির চিকিৎসাও কিন্তু আর দশটা সাধারণ ব্রণের চাইতে আলাদা হবে। এমনটা বারবার হলে গাইনি চিকিৎসকের সঙ্গে বা ডার্মেটোলজিস্টের সঙ্গে কথা বলুন।

২। ত্বকের বয়স বেড়ে যাচ্ছে?

আপনার মনে হতেই পারে যে, ত্বকের বয়স বেড়ে যাওয়া মানে ত্বকের কোষ খুব দ্রুত কাজ করা। বাস্তবে ব্যাপারটি কিন্তু মোটেই এমন নয়। বরং, পুরনো কোষকে সরিয়ে নতুন কোষ দ্রুত না আসতে পারায়ও এমনটা হতে পারে। আর এ ক্ষেত্রে অ্যান্টি-এজিং ক্রিম নয়, আপনার প্রয়োজন হলো ত্বকের কার্যক্রম দ্রুত করে দেয় এমন কোনো পদ্ধতি। আলফা হাইড্রোক্সি এসিড এ ক্ষেত্রে বেশ ভালো কাজ করে। তবে আরও ভালো ফলাফল পেতে চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুন।

৩। ত্বক লালচে হয়ে যাচ্ছে?

যেখানে ব্লাশার ব্যবহার করে আমরা ত্বকে লালচেভাব নিয়ে আসি, সেক্ষেত্রে প্রাকৃতিকভাবেই ত্বকে ব্লাশ তৈরি হলে অনেকেই সেটাকে ইতিবাচক কিছু হিসেবে ভেবে থাকেন। বাস্তবে কিন্তু ব্যাপারটি একেবারেই এমন নয়। আমাদের ত্বকের একদম উপরিভাগে ত্বককে সুরক্ষা দিতে এবং শুষ্কতা থেকে রক্ষা করতে একটি আবরণ থাকে।

আপনার ত্বক নিজ থেকেই লালচে হয়ে যাচ্ছে তার অর্থ এই দাঁড়ায় যে, ত্বকের এই আবরণ আর ঠিকঠাক কাজ করছে না। সে ক্ষেত্রে এমন পণ্য ব্যবহার করুন যেগুলো ত্বকের জন্য রুক্ষ হবে না। এছাড়া পুষ্টিকর খাবার খান এবং ত্বকের যথাযথ যত্ন নিন।

৪। চোখের নিচে ব্যাগ যাচ্ছে?

চোখের নিচে ব্যাগ মানেই কিন্তু মদ্যপানের ফল নয়। আমরা অনেকেই এই ভুল ধারনা পোষণ করি। তবে হ্যাঁ, আপনি যদি অ্যালকোহল পান না করলেও ধূমপান করেন, অ্যালার্জির ভুক্তভোগী হন, অনেক বেশি লবণ খান বা ফাস্টফুড গ্রহণ করেন সে ক্ষেত্রে এমন আই ব্যাগ আপনার চোখের নিচেও তৈরি হতে পারে। শুধু তাই নয়, চোখের নিচের কালচে দাগটাও ঘুমের স্বল্পতা নয়, বংশগত কারণে দেখা দিতে পারে।

৫। ত্বকে অনেক ফাটা চিহ্ন?

আপনার ত্বকে যদি অনেক বেশি ফাটা চিহ্ন থাকে তার মানে কিন্তু এই নয় যে, এটি আপনার ত্বকের কোনো সমস্যা। বরং, এটা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি যে, আপনার ত্বক অনেক বেশি পিপাসার্ত। তাই এমনটা হলে ত্বকে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন এবং প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন।

৬। ত্বকে লালচে শিরা বেরিয়ে আছে?

শুধু লালচে শিরা নয়, আপনার ক্ষেত্রে যদি ব্লাশ করার পরিমাণও বেড়ে যায় সে ক্ষেত্রে এর কারণ হতে পারে রোজাসিয়া। পুরো পৃথিবীতে প্রায় কয়েক লক্ষ মানুষ এই সমস্যায় ভুগছেন। তাই, ত্বককে সুস্থ রাখতে নিয়মিত ত্বকের কিছু যত্ন নেওয়া শুরু করুন এখনই। একই সঙ্গে প্রয়োজন অনুসারে জীবনপদ্ধতিও পরিবর্তন করতে পারেন।

ওপরের যেকোনো একটি লক্ষণ কি আপনার ত্বকেও দেখা যাচ্ছে? সে ক্ষেত্রে, ভুলভাল চিকিৎসা না করে কোনো বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। এতে করে বাড়তি কোনো ক্ষতির সম্ভাবনা ছাড়াই আপনার ত্বক আরও অনেক সুস্থ হয়ে উঠবে সহজেই।

সূত্র- এভরিডেহেলথ


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।