২৬শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, বুধবার
১লা রজব, ১৪৪১ হিজরী

মেয়ে পটাতে গিয়ে বড় ক্ষতি মুখে রাসেল

প্রকাশিত: ৪:২৪ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

মেয়ে পটাতে গিয়ে বড় ক্ষতি মুখে রাসেল

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বে এখন টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের অন্যতম বিজ্ঞাপন তিনি। তার বিধ্বংসী ব্যাটিং আর গতিময় বোলিং এখন অনেক অলরাউন্ডারেরই আদর্শ। বিশেষ করে তার ব্যাটিং শক্তির প্রশংসা বিশ্বজুড়ে। তবে আন্দ্রে রাসেল কিন্তু শুধু ক্রিকেটটার জন্যই নিজেকে এমন শক্তিশালী করে তুলেননি। তার এমন ‘মাসলম্যান’ হয়ে ওঠার পেছনে আসল উদ্দেশ্য ছিল-মেয়েদের পটানো।

হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগতে পারে। কিন্তু আন্দ্রে রাসেল নিজেই এমন কথা স্বীকার করেছেন। ক্যারিবীয় এই অলরাউন্ডার জানালেন, মেয়ে পটানোর কথা চিন্তা করে শরীরের বড়সড় ক্ষতিও করে ফেলেছেন।

‘মাসলম্যান’ হতে গিয়ে জিমে বেশিরভাগ মানুষই শুধু শরীরের ওপরের অংশটার দিকে নজর দেয়। কেননা বড় মাসল, চওড়া কাঁধ আর বুকই নজরে পড়ে সবার। তাই অনেকেই এড়িয়ে যান, পা আর উরুর ব্যায়ামের কথা। যে ভুলটা করেছেন রাসেলও।

হাঁটুর চোটটা তার পুরোনো। কিন্তু সেদিকে নজরই দেননি রাসেল। সেই ভুল নিয়ে এখনও আফসোস হয় তার। ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার বলেন, ‘যারা আরেকজন রাসেল হতে চায়, আমার সঙ্গে যা হয়েছে তা যেন তাদের না হয়। যখন আমি ২৩ বা ২৪ বছরের ছিলাম, তখনই আমার হাঁটুর চোট ছিল। যদি কেউ আমাকে বলতো-দেখো রাসেল, তোমার অবশ্যই ছোটখাটো এই ব্যায়ামগুলো করে হাঁটুটা শক্তিশালী করা উচিত। তবে আমার হাঁটুতে এই ব্যথা থাকতো না, হয়তো সার্জারিও করাতে হতো না। দুর্ভাগ্যজনকভাবে, ২৩ বছর বয়সে আমি ভয়ডরহীন ছিলাম। আমি সেই ব্যথাকে পাত্তা দেইনি। হয়তো পেইন কিলার নিয়েও দৌড়েছি।’

রাসেল যোগ করেন, ‘কিন্তু যখন ত্রিশের কাছাকাছি বয়স হয়ে যায়, আমি এমন ব্যথা অনুভব করতে থাকি যা আগে কখনও হয়নি। যদি সেই সময় আমি পায়ের ব্যায়াম করতাম ঠিকভাবে, তবে এমন হতো না।’

কেন শুধু শরীরের ওপরের অংশ নিয়েই পড়ে ছিলেন, সেই রহস্যও ফাঁস করলেন রাসেল। ক্যারিবীয় অলরাউন্ডার বলেন, ‘আমি চাই তরুণরা যাতে শুধু নিজেদের শরীরের ওপরের অংশ নিয়ে পড়ে না থাকে। আমি জিমে যেতাম এবং শুধু আমার অ্যাবস আর শোল্ডার (কাঁধ) নিয়ে কাজ করতাম। আমি চাইতাম, যাতে মেয়েদের সামনে আমাকে আকর্ষণীয় লাগে। কিন্তু আকর্ষণীয় হতে গিয়ে দিনশেষে আমার পা দুর্বল হয়ে গেছে, এটা কাজ করছে না। তাই পুরো শরীরের ব্যায়াম করাটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। যদি পা নিয়ে তখন কাজ করতাম, তবে এখন বিস্ময়কর আরও কিছু করতে পারতাম।’


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।