৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, সোমবার
৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

বিয়ের আসরে বরকে বেধড়ক মারধর!

প্রকাশিত: ১:১৪ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

বিয়ের আসরে বরকে বেধড়ক মারধর!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  পাকিস্তানে বিয়ের আসর থেকে প্রথমে বরকে ধাওয়া, এর পর বেধড়ক মারধর করেছে হবু শ্বশুড়বাড়ির লোকেরা।বিয়ের কিছুক্ষণ আগে বিয়েবাড়িতে বরের আগের এক স্ত্রী হাজির হয়ে তার আরও দুটি স্ত্রী আছে- এমন তথ্য দেয়ার পরই বিক্ষুব্ধ লোকজন তাকে ধাওয়া করে। খবর বিবিসির। আসিফ রফিক সিদ্দিকী নামে ৩০ বছর বয়সী ওই ব্যক্তিকে মারধর করার সময় তার শার্ট ও প্যান্ট ছিঁড়ে যায়। একপর্যায়ে প্রাণ বাঁচাতে একটি থেমে থাকা বাসের নিচে গিয়ে আশ্রয় নেন তিনি। পরে তাকে উদ্ধার করেন এলাকাবাসী। পাকিস্তানে বহুবিবাহ অবৈধ না। একজন পুরুষ চারটি পর্যন্ত বিয়ে করতে পারে, কিন্তু এ ক্ষেত্রে নতুন বিয়ে করার আগে তাকে আগের স্ত্রীদের অনুমতি নিতে হয়।

করাচিতে নতুন বিয়ের অনুষ্ঠানে অভিযুক্ত ব্যক্তির আগের স্ত্রী এসে হাজির হওয়ার পরই তার নতুন স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যরা প্রথমবার আগের স্ত্রীদের সম্পর্কে জানতে পারেন। আগের স্ত্রী মাদিহা সিদ্দিকী জানান, তার স্বামী আসিফ রফিক সিদ্দিকী তিন দিনের জন্য হায়দ্রাবাদ যাচ্ছেন বলে বাড়ি থেকে বের হন। পরে তিনি জানতে পারেন, তার বিয়েপাগলা স্বামী তৃতীয় বিয়ে করতে গেছে। ২০১৮ সালে লুকিয়ে সিদ্দিকী আরও একটি বিয়ে করেন। তার ওই স্ত্রীর নাম জেহরা আশরাফ। ওই নারী করাচিতে জিন্নাহ উইমেনস ইউনিভার্সিটির শিক্ষক। স্বামীর নতুন বউয়ের পাঠানো একটি খুদেবার্তা দেখে ওই বিয়ে সম্পর্কে জানতে পারেন সিদ্দিকীর প্রথম স্ত্রী।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।