২৯শে মার্চ, ২০২০ ইং, রবিবার
৫ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

মুক্তাগাছার মন্ডার দোকানের অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন!

প্রকাশিত: ৯:১৪ অপরাহ্ণ , ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২০

মুক্তাগাছার মন্ডার দোকানের অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন!

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:ঐতিহ্যবাহী মুক্তাগাছা গোপাল পালের মন্ডার দোকানের অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করেছে দুদকের ভ্রাম্যমান টিম। এ সময় অবৈধ গ্যাস ব্যবহারের দায়ে এক লাখ টাকা জরিমানাও করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এদিন কালামিয়া হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টেরর গ্যাস লাইনও বিচ্ছিন্ন করা হয়। রোববার সন্ধ্যার পর মুক্তাগাছার বিভিন্ন স্থানে দুদকের অভিযান পরিচালিত হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও মুক্তাগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবর্ণা সরকারের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশন ময়মনসিংহ অঞ্চলের সহকারী পরিচালক রামপ্রসাদ মন্ডল, উপ-সহকারী পরিচালক এনামুল হক ও তিতাস গ্যাস ময়মনসিংহ অঞ্চলের ডিপুটি ম্যানেজার ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ আহমদ উল্লাহ। দীর্ঘদিন ধরে চলছিল মুক্তাগাছার মন্ডার দোকানের অবৈধ গ্যাস লাইনের সংযোগ। গোপন খবরের ভিত্তিতে দুর্নীতি দমন কমিশন ও তিতাস গ্যাসের সমন্ময়ে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় মন্ডার দোকান থেকে ঝুঁকিপূর্ণভাবে গ্যাস মজুদ রাখার একটি ট্রলিও ৪টি গ্যাস ভর্তি
সিলিন্ডার জব্দ করা হয়।

ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবর্ণা সরকার বলেন, এ দু’টি দোকানে দীর্ঘদিন ধরে অবৈধভাবে গ্যাস সংযোগ দিয়ে রাখছিল। এই অপরাধে মন্ডার দোকানের গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করাসহ এক লাখ টাকা জরিমানা ও কালামিয়া সুইটমিট এন্ড রেস্টুরেন্টের গ্যাস লাইন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।