৬ই এপ্রিল, ২০২০ ইং, সোমবার
১৩ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

টাকার অভাবে হাসপাতালেই পড়ে আছে অগ্নিদগ্ধ সাথি!

প্রকাশিত: ৬:২২ অপরাহ্ণ , মার্চ ১৫, ২০২০

টাকার অভাবে হাসপাতালেই পড়ে আছে অগ্নিদগ্ধ সাথি!

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ৫ বছরের শিশু সাথী। আগামী বছর স্কুলে ভর্তির প্রস্তুতি নিচ্ছে। শিশু মনে প্রণের উচ্ছাস। চোখে মুখে আনন্দ। বাড়ির উঠোন আলো করে বেড়ানো ফুটফুটে এই শিশুটি এখন জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষনে। ফাঁকা বাড়িতে অন্য শিশুদের নিয়ে ভাত রান্না খেলা করতে গিয়ে অগ্নিদগ্ধ হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সাধুহাটি ইউনিয়নের পোতাহাটি গ্রামে। সাথীর মা কল্পনা খাতুন জানান, টাকার অভাবে তার মেয়ের চিকিৎসা করাতে পারছেন না। ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের চিকিৎসকরা উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। কিন্তু চিকিৎসা তো দুরের কথা মেয়েকে বহন করে নিয়ে যাওয়ার মতো গাড়ি ভাড়ার টাকাও তাদের কাছে নেই।

বাধ্য হয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে মেয়েকে নিয়ে ৫ দিন যাবৎ পড়ে আছে। শিশু সাথী খাতুন পোতাহাটী গ্রামের মোঃ হান্নান শেখের মেয়ে। হাটে হাটে ইঁদুর মারা ওষুধ বিক্রেতা আব্দুল হান্নান শেখের নুন আনতে পান্তা ফুরানোর অবস্থা। ৪ মেয়ে ও এক ছেলে তার। দুই মেয়ে বিয়ে দিয়েছেন। অগ্নিদগ্ধ সাথী সবার ছোট। আব্দুল হান্নান জানান, গত বুধবার ফাঁকা বাড়িতে আগুন নিয়ে খেলতে গিয়ে সাথীর জামায় আগুন লেগে যায়। আগুন নেভাতে গিয়ে আরো দুই শিশুর হাত পুড়ে যায়। আগুনে সাথীর শরিরের এক তৃতীয় অংশ পুড়ে গেছে। উন্নত চিকিৎসা করালে ফুটফুটে মেয়েটি সুস্থ হয়ে উঠতো বলে চিকিৎসকদের তাদের কাছে জানিয়েছেন। কিন্তু টাকার অভাবে সাথীর চিকিৎসা হচ্ছে না। সমাজের বিত্তবানদের কাছে সাথীর হতদরিদ্র পিতা আব্দুল হান্নান শেখ আর্থিক সহায়তা চেয়েছেন।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।