৩রা এপ্রিল, ২০২০ ইং, শুক্রবার
৯ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

বালু ফেলাকে কেন্দ্র করে অন্তঃসত্ত্বা নারীকে মারধর!

প্রকাশিত: ১১:২৩ পূর্বাহ্ণ , মার্চ ২১, ২০২০

বালু ফেলাকে কেন্দ্র করে অন্তঃসত্ত্বা নারীকে মারধর!
লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ  লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বালু ফেলাকে কেন্দ্র করে অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ২ জনকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে মাসুদ রানা নামে এক জনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা নারীসহ ২ জনকে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলার খোর্দ্দ বিছনদই এলাকার মকবার আলীর ছেলে মাসুদ রানা (৩৩) একই এলাকার আজিজার রহমানের ছেলে সামছুল ইসলাম এর বাড়ীর সামনে সামছুলের জমিতে জোরপুর্বক ট্রাকে করে বালু ফেলছিল। এ সময় সামসুল ইসলামের অন্তঃসত্ত্বা মেয়ে সুলতানা (৩২) ও জামাতা আহসান হাবীব বালু ফেলতে বাঁধা দেয়।
এতে পূর্বের জমিজমার জের ধরে পরিকল্পিত ভাবে মাসুদ রানাসহ প্রায় ৭ থেকে ৮ জন এলোপাতারিভাবে অন্তঃসত্ত্বা সুলতানা ও আহসান হাবীবকে মারধর করে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাতীবান্ধা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।এ বিষয়ে অন্তঃসত্ত্বা সুলতানা বলেন, মাসুদ রানা আমাদের জমিতে জোর পূর্বক বালু ফেলছিল এ সময় আমি ও আমার স্বামী তাদের বাঁধা দিলে মাসুদ রানাসহ আরও কয়েকজন আমাদের এলোপাতারিভাবে মারধর শুরু করে।
এ ঘটনায় আমার বাবা বাদি হয়ে রাতেই হাতীবান্ধা থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।মাসুদ রানা এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, আমি সরকারী রাস্তায় বালু ফেলছিলাম এ সময় হয়তো তাদের জমিতে একটু বালু পরেছিল। আমি বালু সরিয়ে নিতে একটু দেরি হওয়ায় তারাই আমাদের মারধর করেছে। হাতীবান্ধা থানার ওসি (তদন্ত) নজির হোসেন বলেন, এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।