৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, সোমবার
৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

করোনা নিয়ে পোস্টকরে বিতর্কের মুখে পড়ে পোস্ট ডিলিট করলেন অমিতাভ

প্রকাশিত: ৩:৫৯ অপরাহ্ণ , মার্চ ২৪, ২০২০

করোনা নিয়ে পোস্টকরে বিতর্কের মুখে পড়ে পোস্ট ডিলিট করলেন অমিতাভ

 

বিনোদন ডেস্কঃ মরণব্যধি করোনাভাইরাস দিন দিন বেড়েই চলেছে। এবার করোনাভাইরাস নিয়ে টুইটারে এক টুইটকরে বিতর্কের মুখে পড়লেন বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। বিতর্কের মুখে বাধ্য হয়ে টুইটটি মুছে দেন তিনি।

অমাবস্যার কালো দিনে ভাইরাস বেশি ছড়ায়। এসময় ভাইরাস- ব্যাকটেরিয়াসহ ক্ষতিকারক শক্তিগুলির ক্ষমতা বেড়ে যায়। এমন একটি টুইট করেছিলেন তিনি। এরপর থেকে শুরু হয় বিতর্ক।

মরনঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে লকডাউন করা হয়েছে ভারতজুড়ে। রোববার দেশটিতে পালন করা হয় ‘জনতা কারফিউ’।

তবু তার মাঝে জরুরি পরিষেবা দান করে যাচ্ছেন অনেকেই। তাদের জন্য পাঁচ মিনিট হাততালি দেওয়ার কথা বলেন নরেন্দ্র মোদি। ভিকি কৌশল, শাহরুখ খানদের পাশাপাশি অমিতাভ বচ্চনকেও দেখা যায় ছাদে উঠে হাততালি দিয়ে ধন্যবাদ জানাতে। সঙ্গে ছিলেন অভিষেক, ঐশ্বরিয়া রাইকেও।

জরুরি পরিষেবাপ্রদানকারীদের ধন্যবাদ জানানোর পর অমিতাভ একটি টুইট করেন। তিনি লেখেন, অমাবস্যার কালো দিনে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া-সহ ক্ষতিকরারক শক্তিগুলির ক্ষমতা বেড়ে যায়। শঙ্খনাদ, কাঁসর,ঘণ্টা কিংবা হাততালি ওই সমস্ত ব্যকটেরিয়া, জীবাণুর ক্ষমতা ধ্বংস করতে সাহায্য করে।

এই টুইটের পর অনেকে প্রশ্ন তুলেন অমিতাভ বচ্চন কীভাবে এই ধরনের টুইট করতে পারেন! নেটিজেনদের একাংশের ক্রমাগত সমালোচনার জেরে শেষ পর্যন্ত নিজের টুইট ডিলিট করেন অমিতাভ বচ্চন।

বিনোদন ডেস্কঃ মরণব্যধি করোনাভাইরাস দিন দিন বেড়েই চলেছে। এবার করোনাভাইরাস নিয়ে টুইটারে এক টুইটকরে বিতর্কের মুখে পড়লেন বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। বিতর্কের মুখে বাধ্য হয়ে টুইটটি মুছে দেন তিনি।

অমাবস্যার কালো দিনে ভাইরাস বেশি ছড়ায়। এসময় ভাইরাস- ব্যাকটেরিয়াসহ ক্ষতিকারক শক্তিগুলির ক্ষমতা বেড়ে যায়। এমন একটি টুইট করেছিলেন তিনি। এরপর থেকে শুরু হয় বিতর্ক।

মরনঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে লকডাউন করা হয়েছে ভারতজুড়ে। রোববার দেশটিতে পালন করা হয় ‘জনতা কারফিউ’।

তবু তার মাঝে জরুরি পরিষেবা দান করে যাচ্ছেন অনেকেই। তাদের জন্য পাঁচ মিনিট হাততালি দেওয়ার কথা বলেন নরেন্দ্র মোদি। ভিকি কৌশল, শাহরুখ খানদের পাশাপাশি অমিতাভ বচ্চনকেও দেখা যায় ছাদে উঠে হাততালি দিয়ে ধন্যবাদ জানাতে। সঙ্গে ছিলেন অভিষেক, ঐশ্বরিয়া রাইকেও।

জরুরি পরিষেবাপ্রদানকারীদের ধন্যবাদ জানানোর পর অমিতাভ একটি টুইট করেন। তিনি লেখেন, অমাবস্যার কালো দিনে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া-সহ ক্ষতিকরারক শক্তিগুলির ক্ষমতা বেড়ে যায়। শঙ্খনাদ, কাঁসর,ঘণ্টা কিংবা হাততালি ওই সমস্ত ব্যকটেরিয়া, জীবাণুর ক্ষমতা ধ্বংস করতে সাহায্য করে।

এই টুইটের পর অনেকে প্রশ্ন তুলেন অমিতাভ বচ্চন কীভাবে এই ধরনের টুইট করতে পারেন! নেটিজেনদের একাংশের ক্রমাগত সমালোচনার জেরে শেষ পর্যন্ত নিজের টুইট ডিলিট করেন অমিতাভ বচ্চন।

বিনোদন ডেস্কঃ মরণব্যধি করোনাভাইরাস দিন দিন বেড়েই চলেছে। এবার করোনাভাইরাস নিয়ে টুইটারে এক টুইটকরে বিতর্কের মুখে পড়লেন বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন। বিতর্কের মুখে বাধ্য হয়ে টুইটটি মুছে দেন তিনি।

অমাবস্যার কালো দিনে ভাইরাস বেশি ছড়ায়। এসময় ভাইরাস- ব্যাকটেরিয়াসহ ক্ষতিকারক শক্তিগুলির ক্ষমতা বেড়ে যায়। এমন একটি টুইট করেছিলেন তিনি। এরপর থেকে শুরু হয় বিতর্ক।

মরনঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে লকডাউন করা হয়েছে ভারতজুড়ে। রোববার দেশটিতে পালন করা হয় ‘জনতা কারফিউ’।

তবু তার মাঝে জরুরি পরিষেবা দান করে যাচ্ছেন অনেকেই। তাদের জন্য পাঁচ মিনিট হাততালি দেওয়ার কথা বলেন নরেন্দ্র মোদি। ভিকি কৌশল, শাহরুখ খানদের পাশাপাশি অমিতাভ বচ্চনকেও দেখা যায় ছাদে উঠে হাততালি দিয়ে ধন্যবাদ জানাতে। সঙ্গে ছিলেন অভিষেক, ঐশ্বরিয়া রাইকেও।

জরুরি পরিষেবাপ্রদানকারীদের ধন্যবাদ জানানোর পর অমিতাভ একটি টুইট করেন। তিনি লেখেন, অমাবস্যার কালো দিনে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া-সহ ক্ষতিকরারক শক্তিগুলির ক্ষমতা বেড়ে যায়। শঙ্খনাদ, কাঁসর,ঘণ্টা কিংবা হাততালি ওই সমস্ত ব্যকটেরিয়া, জীবাণুর ক্ষমতা ধ্বংস করতে সাহায্য করে।

এই টুইটের পর অনেকে প্রশ্ন তুলেন অমিতাভ বচ্চন কীভাবে এই ধরনের টুইট করতে পারেন! নেটিজেনদের একাংশের ক্রমাগত সমালোচনার জেরে শেষ পর্যন্ত নিজের টুইট ডিলিট করেন অমিতাভ বচ্চন।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।