৩০শে মার্চ, ২০২০ ইং, সোমবার
৬ই শাবান, ১৪৪১ হিজরী

করোনা প্রতিরোধে তহবিল গঠন ক্রিকেটারদের, সবার সহযোগিতা চাইলেন মুশফিক

প্রকাশিত: ১:৫৭ অপরাহ্ণ , মার্চ ২৫, ২০২০

করোনা প্রতিরোধে তহবিল গঠন ক্রিকেটারদের, সবার সহযোগিতা চাইলেন মুশফিক

 

 

স্পোর্টস ডেস্কঃ করোনাভাইরাসের কারণে  বাংলাদেশের গরীব অসহায় মানুষদের জীবণ আরও কষ্টকর হয়ে উঠেছে। গৃহবন্দী থাকার কারণে তারা না খেয়ে অসহায় ভাবে জীবন-যাপন করছে। এবার এসব মানুষদের পাশে দাড়ালেন বাংলাদেশ জাতীয়  ক্রিকেট দলের ক্রিকেটাররা।

করোনায় আক্রান্ত রোগী ও সাধারণ অসহায় মানুষদের  সাহায্য করার জন্য ক্রিকেটাররা নিজেরাই এক তহবিল গঠন করেছে। আর সবাই তাতে এই মাসের বেতনের অর্ধেক টাকা দিয়েছে। এই টাকা ব্যয় করা হবে করোনা রোগে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় ও সাধারণ মানুষ যাদের গৃহবন্দী থাকা অবস্থায় জীবন চালিয়ে নিতে অনেক কষ্ট হয়। এমনটাই জানিয়েছেন মুশফিকুর রহিম।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে মুশফিকুর রহিম নিজে এই তহবিল গঠনের কথা জানান এবং তাদের একার পক্ষে করোনা প্রতিরোধ করা সম্ভব নয়। তাই তিনি সবাইকে অনুরোধ করেন  এগিয়ে আসার। ১০০, ৫০০ যে যা পারেন তাই দিয়ে সাহায্য করার এবং তা না পারলেও দুস্থ মানুষদের খাবার  কিনে দিয়ে সাহায্য করার অনু্রোধ করেন।

মুশফিকুর রহিম তার পোস্টে  লিখেছেন, “আসসালামুআলাইকুম। আপনারা সবাই জানেন করোনাভাইরাসের সংক্রমণে চারদিকে ক্রমেই ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯ রোগ। এই রোগ প্রতিরোধে কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে পুরো বিশ্ব। বাংলাদেশও ব্যতিক্রম নয়। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে যার যার জায়গা থেকে।

সেটির অংশ হিসেবে আমরা ক্রিকেটাররা একটা উদ্যোগ নিতে যাচ্ছি, যেটি হয়তো অনুপ্রাণিত করতে পারে আপনাদেরও। আমরা এই মাসের বেতনের ৫০ শতাংশ দিয়ে একটা তহবিল গঠন করেছি। এই তহবিল ব্যয় হবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে আক্রান্ত কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত ও সাধারণ মানুষ যাদের গৃহবন্দী থাকা অবস্থায় জীবন চালিয়ে নিতে অনেক কষ্ট হয়।

তহবিলে জমা পড়েছে প্রায় ৩০ লাখ টাকার মতো। কর কেটে থাকবে ২৬ লাখ টাকা। করোনার বিরুদ্ধে জিততে হলে আমাদের এই উদ্যোগ হয়তো যথেষ্ট নয়। কিন্তু যাদের সামর্থ্য আছে সবাই যদি এক সঙ্গে এগিয়ে আসেন কিংবা ১০জনও যদিও এগিয়ে আসেন, এই লড়াইয়ে আমরা অনেক এগিয়ে যাব। হ্যাঁ, এরই মধ্যে করোনা মোকাবিলায় অনেকে এগিয়ে এসেছেন। তাদের অবশ্যই সাধুবাদ জানাই। কিন্তু বৃহৎ পরিসরে যদি আরও অনেকে এগিয়ে আসে, তাহলে আমরা এই লড়াইয়ে জিততে পারব ইনশাআল্লাহ। সেই সহায়তা হতে পারে ১০০, ৫০০০ কিংবা ১ লাখ টাকা দিয়ে। টাকা দিয়ে না হোক হতে পারে দুস্থ মানুষকে খাবার কিনে দিয়ে। আসুন পুরো দেশকে আমরা একটা পরিবার ভেবে চিন্তা করি এবং এই বিপদে সবাই সবাইকে সহায়তা করি। আল্লাহ আমাদের নিশ্চয়ই রক্ষা করবেন। ইনশাআল্লাহ-MR15”


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।