সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং

৫ যুবককে কান ধরিয়ে উঠবস করালো পুলিশ, দাঁড়িয়ে দেখলেন ইউএনও

প্রকাশিত: ৯:৪০ পূর্বাহ্ণ , মার্চ ৩০, ২০২০

৫ যুবককে কান ধরিয়ে উঠবস করালো পুলিশ, দাঁড়িয়ে দেখলেন ইউএনও

 

সিএনআই ডেস্কঃ যশোরে এসিল্যান্ডের মাধ্যমে তিন প্রবীণকে কান ধরিয়ে উঠবস করানোর ঘটনার রেশ কাটতে না কাটতে এবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) সামনে ৫ যুবককে কান ধরিয়ে উঠবস করানোর ঘটনা ঘটেছে। গত শুক্রবার দুপুরের দিকে উপজেলার ধুকুরিয়া বেড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন বেলকুচির ইউএনও সিফাত-ই-জাহান। তবে, তিনি ঘটনার দায় চাপিয়েছেন পুলিশের ওপর।

ইউএনও বলেন, ‘করোনাভাইরাস প্রতিরোধে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ওই এলাকায় গেলে ৫ যুবক গ্যাদারিং করছিলেন। পুলিশ তাদের সরে যেতে বললে পুলিশ কনস্টেবলের সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন তারা। এতে পুলিশ তাদের কান ধরে উঠবস করায়। আমি তাৎক্ষণিক তাদের ছেড়ে দেই।’

কান ধরে উঠবস করানো সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সমালোচনার সৃষ্টি হয়।

বেলকুচি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা ঠিক নয়। ইউএনও যদি পুলিশের ওপর দায় চাপিয়ে দিয়ে থাকেন সেটি হবে খুবই দুঃখজনক।’

এ বিষয়ে ধুকুরিয়া বেড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুর রশীদ শামীম বলেন, ‘বিষয়টি আমি অবগত নই। তবে এমন ঘটনা ঘটে থাকলে তা সঠিক হয়নি।’

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ তোফাজ্জল হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘এটি আইনসিদ্ধ নয়। এ ধরনের ঘটনা ঘটে থাকলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে সতর্ক করা হবে।’

প্রসঙ্গত, করোনাভাইরাস প্রতিরোধ অভিযানে যশোরের মনিরামপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে তিন বৃদ্ধকে মাস্ক না পড়ায় কান ধরিয়ে উঠবস করানোর ঘটনায় এসিল্যান্ড সাইয়েমা হাসানকে নিয়ে দেশজুড়ে ব্যাপক সমালোচনা সৃষ্টি হয়। ওই ঘটনার বেশ কয়েকটি ছবি যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে তাকে প্রত্যাহার করে বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে সংযুক্তির নির্দেশ দেন জনপ্রশাসন সচিব শেখ ইউসুফ।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।