মঙ্গলবার, ২৬শে মে, ২০২০ ইং

ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মহীন হোটেল শ্রমিকদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন

প্রকাশিত: ৮:১৩ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ৪, ২০২০

ঠাকুরগাঁওয়ে কর্মহীন হোটেল শ্রমিকদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন
ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিঃ  যতই দিন যাচ্ছে,ততই দীর্ঘ হচ্ছে লাশের সারি। বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে বিভিন্ন দেশে জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে অচল হয়ে পড়েছে বাংলাদেশও। গত ২৬ মার্চ থেকে করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সারাদেশে সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হলেও সেই ছুটির সময় বাড়ানো হয়েছে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত। সেই সাথে বন্ধ করে দেওয়া হয় সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। ঘর থেকে বের হতে পাচ্ছে না জনসাধারণ। এ অবস্থায় কর্মহীন হয়ে পড়েছে দিনমজুর,খেটে খাওয়া শ্রেণির মানুষ ও হোটেল শ্রমিকরা। দেশের এ সংকটময় মুহূর্তে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গরিব,অসহায় ও শ্রমিকদের মানুষের পাশে দাড়ানোর আহবান জানিয়েছেন সমাজের বিত্তবান ও বিভিন্ন সামাজিক প্রতিষ্ঠানকে।
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন ও ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম এর  অনুপ্রেরণায় রুরাল ডেভলোপমেন্ট সার্ভিস(আর.ডি.এস) এর উদ্যোগে নিজ অর্থায়নে কর্মহীন  ৫০টি হোটেল শ্রমিক পরিবারের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন। শনিবার দুপুরে  ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা ভুল্লীতে রুরাল ডেভলোপমেন্ট সার্ভিস(আর.ডি.এস) এর কার্য্যলয়ে প্রত্যেক পরিবারকে ৫ কেজি চাল,৫০০গ্রাম ডাল, ৫০০গ্রাম তেল, ১ কেজি মুড়ি,১ কেজি চিড়া ও ১ টি সাবান এর প্যাকেট সামগ্রী দেওয়া হয়।
খাদ্য সামগ্রী বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন,রুরাল ডেভলোপমেন্ট সার্ভিস(আর.ডি.এস) এর নির্বাহী পরিচালক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ আলমগীর হোসেন। ৫ নং বালিয়া ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান নূরে আলম সিদ্দিকী মুক্তি,মৌচাক হোটেল ও রেস্টুরেন্ট এর স্বত্তাধিকারী মোস্তাফিজুর রহমান,আর.ডি.এস এর কর্মীবৃন্দ সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
এ সময় রুরাল ডেভলোপমেন্ট সার্ভিস(আর.ডি.এস) এর নির্বাহী পরিচালক ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মোঃ আলমগীর হোসেন বলেন,হোটেল শ্রমিক ও অসহায় মানুষদের পাশে আমি আছি,এ সংকটময় মুহূর্তে কেউ কোন সমস্যার মধ্যে থাকলে আমাকে জানাবেন। আমি যতটুকু পারবো তা দিয়ে আপনাদের সহযোগীতা করবো। আর.ডি. এস. সব সময় অসহায় মানুষদের পাশে ছিলো,ভবিষ্যতেও থাকবে। জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম স্যারের অনুপ্রেরণায় করোনা মোকাবিলায় ৫০টি কর্মহীন হোটেল শ্রমিক পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে আমাদের প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন রকম উদ্যোগ নিয়েছি। আমরা মানুষদের মাঝে সচেতনতা মূলক প্রচারণা চালাচ্ছি। এ সময় তিনি আরো বলেন, আসুন আমরা সকলে সামর্থ্য অনুযায়ী দুঃস্থ ও অসহায় মানুষগুলোর পাশে দাঁড়াই। ইনশাল্লাহ মহান সৃষ্টিকর্তার কৃপা ও আমাদের সকলের সন্মিলিত প্রচেষ্টায় দ্রুততম সময়ের মধ্যে এ দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে পারবো।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।