বুধবার, ২৭শে মে, ২০২০ ইং

করোনা পজিটিভ ব্যক্তিকে বই-ডায়েরী ও ফলমূল পৌছালো টিম ১৯

প্রকাশিত: ১২:২৮ অপরাহ্ণ , মে ২, ২০২০

করোনা পজিটিভ ব্যক্তিকে বই-ডায়েরী ও ফলমূল পৌছালো টিম ১৯

তেঁতুলিয়া (পঞ্চগড়) প্রতিনিধিঃ পঞ্চগড় তেঁতুলিয়ায় করোনা আক্রান্ত আইসোলেশনে থাকা এক ব্যক্তির কাছে ফলমুল, বই ও ডায়েরী উপহার হিসেবে পৌছে দিল স্বেচ্ছাসেবী সামাজিক সংগঠন টিম-১৯। বৃহস্পতিবার বিকেলে করোনা আক্রান্তদের মানসিক সাপোর্টে বাঁচতে পারে একটি জীবন।মানসিকভাবে চাঙা রাখতে এমন মানবিক সহযোগিতা করতে এসব খাদ্য উপঢৌকন পৌছে দেন সংগঠনটির অন্যতম উদ্যোক্তা তহিদুল ইসলাম।এ সময় সাথে ছিলেন টিম-১৯ এর সদস্য জসিম উদ্দিন ও তজিরুল ইসলাম।

জানা যায,বাংলাবান্ধায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকা বিদেশ ফেরত শিক্ষার্থী নমুনা সংগ্রহের রিপোর্টের পর করোনা শনাক্ত হয়।বুধবার তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। জানা যায়, আক্রান্ত হওয়া ভারত ফেরত শিক্ষার্থীর বাড়ি ঠাকুরগাঁও জেলার হরিপুর উপজেলায়।

সংগঠনের অন্যতম এ উদ্যোক্তা তহিদুল ইসলাম বাবু বলেন,উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশন ওয়ার্ডে থাকা করোনা পজিটিভ ব্যক্তির মানসিক শক্তিকে চাঙ্গা করতে ছোট্ট উপহার হিসেবে বই,ডায়েরী ও ফলমুল পৌছে দিয়েছি।

উল্লেখ্য, বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাস বাংলাদেশে থাবার পর স্বেচ্ছাসেবী এ সংগঠনটি নাম দেয় টিম-
১৯।করোনা সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী ২৫ মার্চ রাত থেকে পঞ্চগড়ের অন্যান্য উপজেলার
মতো তেঁতুলিয়াতে দোকানপাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়। বন্ধ হয়ে যায় হোটেল-রেস্তোরাঁও।

এতে সাধারণ মানুষের পাশাপাশি সবচেয়ে দুর্ভোগে পড়েন হাটবাজার ও রাস্তাঘাটে ঘুরে বেড়ানো ভবঘুরে ও মানসিক ভারসাম্যহীন মানুষগুলো। মানসিক ভারসাম্যহীন অসহায় ভবঘুরে মানুষদের পাশে দাঁড়ায় খাদ্য সামগ্রী নিয়ে।এক মাসের বেশি সময় ধরে তারা দু’বেলা রান্না করা খাবার এসব ভবঘুরে (পাগল) মানুষদের মুখে তুলে দিচ্ছে প্রতিদিন। প্রতিদিন তারা টিম ভাগ হয়ে রান্না করা খাবার নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে মানসিক ভারসাম্যহীনদের খুঁজে খুঁজে পৌঁছে দিচ্ছেন।

প্রতিদিন উপজেলার ৬০ থেকে ৭০ জন ব্যক্তিকে খাবার দিয়ে যাচ্ছেন এ সংগঠনের তরুণরা। কোনো দিন খিচুরি আবার কোনো দিন ভাত, মাংস ও সবজি দিয়ে প্যাকেট তৈরি করেন তারা। সাথে দেন পানির বোতলও। এসব পেয়ে কথা না বলা মানুষগুলোর চোখে দেখা যায় পরম স্বস্তি।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।