শনিবার, ৩০শে মে, ২০২০ ইং

টেকনাফের পোকা ঘাসফড়িং জাতীয় : বিশেষজ্ঞ দল

প্রকাশিত: ১১:৫৩ পূর্বাহ্ণ , মে ৩, ২০২০

টেকনাফের পোকা ঘাসফড়িং জাতীয় : বিশেষজ্ঞ দল
কক্সবাজার প্রতিনিধি:  কৃষি মন্ত্রনালয়ের সমন্বয়ে উচ্চপর্যায়ের গঠিত বিশেষজ্ঞ প্রতিনিধি দল কক্সবাজারের টেকনাফে পরিদর্শন করেছেন। শনিবার সকালে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের খামারবাড়ীর ঢাকা উপপরিচালক মো. রেজাউল ইসলামসহ বিভিন্ন প্রতিষ্টানের সাত প্রতিনিধি দলের সদস্য টেকনাফের লম্বরীর কৃষক সোহেল সিকদারের বাড়ির আম গাছে ‘পঙ্গপাল’ সদৃশ পোকার হানায় পাতা নষ্ট দৃশ্যটি ঘুরে দেখেন এবং নমুনা সংগ্রহ করেন।
এসময় বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের কীটতত্ত্ববিদের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. নির্মল কুমার দত্ত, বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের বিভাগের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মো. নাজমুল বারি ও কক্সবাজারের বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের উর্দ্ধতন কর্মকর্তা সারফুদ্দিন ভূঁইয়াসহ বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের কর্মকর্তা, চট্টগ্রাম কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক নাসির উদ্দীন, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মো. রবিউল ইসলাম, টেকনাফের কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার মো. হাদিউর রহমান, উপসহকারী কৃষি অফিসার শফিউল আলমসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
এসময় প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. নির্মল কুমার দত্ত বলেন, ‘আমরা প্রতিনিধি দলের সবাই একমত হয়েছি পঙ্গপাল নয় এইটি ঘাসফড়িং। তবু আমরা নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছি। সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে শতভাগ নিশ্চত হতে পারবো এইটি পঙ্গপাল না ঘাসফড়িং। কিন্তু এখন পর্যন্ত আমরা নিশ্চিত এইটি ঘাসফড়িংয়ের মত একটি প্রজাতি। যা খুব বেশি ক্ষতিকারক না।
এদিকে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় অতিসম্প্রতি ঘাসফড়িং সদৃশ যে পোকা দেখা দিয়েছে তা ‘পঙ্গপাল’ কিনা নিশ্চিত করতে উর্চ্চপর্যায়ে এই প্রতিনিধি দল পরিদর্শনে আসেন।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।