বুধবার, ২৭শে মে, ২০২০ ইং

গভীর রাত পর্যন্ত সৌরভের কলের অপেক্ষায় ছিলেন তামিম

প্রকাশিত: ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ , মে ১৬, ২০২০

গভীর রাত পর্যন্ত সৌরভের কলের অপেক্ষায় ছিলেন তামিম

সিএনআই ডেস্ক: ২০১২ সালে পুনে ওয়ারিয়র্সের হয়ে প্রথমবারের মতো আইপিএলে ডাক পেয়েছিলেন বাংলাদেশের ওপেনার তামিম ইকবাল। তবে সেই আসরে একটি ম্যাচেও খেলার সুযোগ হয়নি তার। কোন ম্যাচ না খেলেই দেশে ফিরেছিলেন তামিম ইকবাল।

শুক্রবার (১৬ মে) ভারতের ওপেনার রোহিত শর্মার সঙ্গে ফেসবুক লাইভে আড্ডায় বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক নিজের আইপিএলের অভিজ্ঞতা ভাগ করেছেন। শুনিয়েছেন মজার গল্প।

তামিম বলেন, ২০১২ সালে আমি আইপিএল খেলেছিলাম। পুনে ওয়ারিয়র্সে ডাক পেয়েছিলাম এবং দাদা (সৌরভ গাঙ্গুলি) দলটির নেতৃত্বে ছিলেন। আমার মনে হয় প্রথম ম্যাচ ওয়াংখেড়েতে ছিল। ঠিক একদিন আগে আমাদের অনুশীলন ছিল। ম্যাচের আগে তিনি যদি কল দেন তবে মনে করতে হবে একাদশে আছি। আর যদি কল না দেন তবে একাদশে নেই।

মজার ব্যাপার হলো তামিম প্রথম ম্যাচের আগে রাত ১টা পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকলেও তার ফোন বাজেনি। এমনকি পুরো আসরেই তামিমকে কল করেননি গাঙ্গুলি। ফলে একটি ম্যাচেও মাঠে নামা হয়নি বাংলাদেশের এ ওপেনারের।

সেই গল্প জানিয়ে তামিম বলেন, অনুশীলন থেকে যখন হোটেলে আসলাম, দাদা আমার দিকে এগিয়ে আসলো এবং বললো, আমি যদি তোমাকে কল দেই তাহলে মনে করবে তুমি একাদশে আছ। আর যদি কল না দেই তাহলে মনে করবে তুমি একাদশে নেই। এভাবেই সে একাদশ ঘোষণা করতো।

টাইগার ওপেনার বলেন, আমার কাছে ব্যাপারটা বেশ আকর্ষণীয় মনে হয়েছিল। আমি রাত ১টা পর্যন্ত অপেক্ষা করেছিলাম ফোন বাজেনি এবং পুরো টুর্নামেন্টেই এটা বাজেনি। তাই আমার একটি ম্যাচও খেলা হয়নি। এটা দুর্ভাগ্যজনক এবং আমি আইপিএল থেকে যে অভিজ্ঞতা পেয়েছি সেটা দারুণ।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।