সোমবার, ৬ই জুলাই, ২০২০ ইং

সুপার ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ভারত ও বাংলাদেশে ১৬ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত: ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ , মে ২১, ২০২০

সুপার ঘূর্ণিঝড় আম্পানে ভারত ও বাংলাদেশে ১৬ জনের মৃত্যু

সিএনআই ডেস্কঃ সুপার ঘূর্ণিঝড় আম্পানের প্রভাবে ভারত ও বাংলাদেশে কমপক্ষে ১৬ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্ধৃতি দিয়ে সিএনএন জানিয়েছে, এর মধ্যে সেখানে অন্তত ১২ জন মারা গেছে। কীভাবে মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে  মমতা সে সম্পর্কে বিস্তারিত না জানালেও হাওড়ায় একটি মেয়ে বাড়ির দেয়াল ধসে মারা গেছে বলে জানান।

বাংলাদেশের উপকূলীয় জেলা পটুয়াখালী, পিরোজপুর ও ভোলা থেকে ইউএনবির সংবাদদাতারা এক শিশু ও স্বেচ্ছাসেবকসহ চারজনের মৃত্যুর খবর জানিয়েছেন। পটুয়াখালীতে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির এক শ্রমিক কলাপাড়া উপজেলার নন্দ খালে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করতে গিয়ে ডুবে মারা গেছে।

জেলার গলাচিপা উপজেলায় পরিবারের সাথে ঘূর্ণিঝড় আশ্রয়কেন্দ্রে যাওয়ার সময় গাছের ডাল পড়ে একটি শিশু মারা গেছে বলে স্থানীয় থানার ইনচার্জ মোস্তাফিজুর রহমান জানিয়েছেন। পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় নিজের ঘরের পাকা দেয়াল ভেঙে চাপা পড়ে ৫৫ বছর বয়সী এক ব্যক্তি মারা গেছেন।

এছাড়া পুলিশ জানিয়েছে, প্রতিকূল আবহাওয়ায় ভোলায় ট্রলারে ডুবে এক ব্যক্তি মারা গেছে। বুধবার বিকালে পশ্চিমবঙ্গের সাগর দ্বীপের কাছে স্থানীয় সময় ৫টার দিকে ঘণ্টায় ১৬০ কিলোমিটার বেগে দমকা হওয়াসহ বাংলাদেশ সীমান্তে ঘূর্ণিঝড় আম্পান আঘাত হানে।

এটি সুন্দরবনের কিছু অংশ ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। আম্পানের ভয়াবহতা থেকে জানমাল রক্ষার্থে বাংলাদেশে প্রায় ২৪ লাখ মানুষকে আশ্রয়কেন্দ্রে সরিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে।

এদিকে, বাংলাদেশ অক্সফামের পরিচালক দিপঙ্কর দত্ত সিএনএনকে বলেন, আম্পানের প্রভাবে হাজার হাজার অস্থায়ী ঘরবাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তবে কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরগুলোতে এটি আঘাত করবে না বলে তিনি জানান। রাজধানী ঢাকাসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ভারী বৃষ্টিপাত হচ্ছে যা বন্যার প্রবণতা সৃষ্টি করতে পারে। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, অতিক্রম করার পরে আম্পান উল্লেখযোগ্যভাবে দুর্বল হয়ে পড়বে। শুক্রবারের মধ্যে ঘূর্ণিঝড়টি বিদায় নিবে বলে আশা করা হচ্ছে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।