শনিবার, ৩০শে মে, ২০২০ ইং

কালবৈশাখী ঝড়

প্রকাশিত: ৩:০২ অপরাহ্ণ , মে ২১, ২০২০

কালবৈশাখী ঝড়

সিএনআই ডেস্কঃ

ধরণীতে এলো ঝড় ; মেঘেদের গর্জন
উঁকি মেরে ঢেকে যায় ছায়াতলে সূর্য
অভ্যাস রীতিনীতি নেহাৎ তার বর্জন।
বর্জ্র-নীনাদে ফেটে যায় হৃদয়ের দম্ভ
থরথর ত্রাসে কেঁপে ওঠে প্রলয়ের স্তম্ভ
বাতাসে ধূলা ওড়ে কুণ্ডলী পাকিয়ে
দানবেরা হানা দেয় সীমান্ত হাঁকিয়ে।

অবলীলায় ভেঙে-চূরে সুখ-নীড় একাকার
বাড়ি-ঘর উড়ে যায়, নিঃস্বের হাহাকার।
চারিধারে ঘুরে ফিরে!বাতাসের তাণ্ডব
প্রিয়জন কেড়ে নেয়, অসহায় বান্ধব।

বিজলীর ঝলসানি, বজ্রের হুংকার
ভয়ে মোর প্রাণ আছে, অবশেষে খুনকার?
ধ্বংসের তাণ্ডবে বারি-ধারা উপমায়
ধরাধাম বিনিয়োগে ঝড়ো হাওয়া খুব চায়।
চারিদিকে আবছায়া আঁধারের কালোতে
এক ঝলক হাসি দেয় বজ্রের আলোতে।
তাণ্ডবে মনে ভাসে প্রলয়ের রাত্রি
সীমাহীন বন্দরে আজ মরণের যাত্রী।

ঝড়ের কবলে আজ ধ্বংসের স্তূপ
জীবনের কোলাহল হয়ে গেছে নিঃশ্চুপ।
গাছ পালা ভেঙে সব উদীয়মান দণ্ড
মানুষের সব আয়োজন নিমিষেই পণ্ড।
থেমে গেছে জীবনের চলন্ত গতিটা
পারবে কি পোষাতে এ বিশাল ক্ষতিটা?

কভু মোরা নাহি দেবো আশাবাদ
প্রত্যেকের প্রেরণায় হবে সাহসের  চাষাবাদ।
নদী ভেঙে গড়ে তীর জমে পলি আস্তর-
মহাতেজে মেঘ ফুঁড়ে হেসে ওঠে ভাস্কর।
প্রলয়ের দোলা মাঝে শৈশব বৈশাখে
জীবনের নতুন সুর বজ্রের ঐ-শাঁখে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।