সোমবার, ২৫শে মে, ২০২০ ইং

৮ নিয়ম অনুসরণ করে ঈদ উল ফিতরের জামায়াত অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ১১:৩৩ অপরাহ্ণ , মে ২৩, ২০২০

৮ নিয়ম অনুসরণ করে ঈদ উল ফিতরের জামায়াত অনুষ্ঠিত

করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিজনিত ওজরের কারণে মুসল্লীদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনা করে এ বছর কোন ঈদগাহ বা খোলা জায়গায় ঈদের নামাজের জামাত অনুষ্ঠিত হবে না। সারা দেশের মতো কিশোরগঞ্জ জেলার মসজিদগুলোতে পবিত্র ঈদ উল ফিতরের এক বা একাধিক জামাত অনুষ্ঠিত হবে। তবে নামাজ পড়ার জন্য স্বাস্থ্যবিধিসহ কিছু নিয়ম বাধ্যতামূলকভাবে মেনে চলতে হবে। জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী এ সংক্রান্ত নিয়মগুলো অনুসরণ করে ঈদ জামাত আয়োজন ও ঈদ জামাতে অংশগ্রহণ করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

জেলা প্রশাসক মো. সারওয়ার মুর্শেদ চৌধুরী এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে বলেছেন, এতদ্বারা সংশ্লিষ্ট সকলের অবগতির জন্য জানানো যাচ্ছে যে, করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিজনিত ওজরের কারণে মুসল্লীদের স্বাস্থ্যঝুঁকি বিবেচনা করে এ বছর ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ময়দানসহ কোন ঈদগাহ বা খোলা জায়গায় ঈদের নামাজের জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে না।
মসজিদে নিম্নবর্ণিত নিয়ম অনুসরণপূর্বক পবিত্র ঈদ উল ফিতরের নামাজের এক বা একাধিক জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে,

১. ঈদের নামাজের জামায়াতের সময় মসজিদে কার্পেট বিছানো যাবে না। নামাজের পূর্বে মসজিদ জীবাণুনাশক দিয়ে পরিষ্কার করতে হবে।

২. মসজিদে অজুর স্থানে সাবান/ হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে।

৩. মুসল্লিগণ নিজ বাসা/বাড়ী থেকে অজু করে নিজস্ব জায়নামাজ নিয়ে মসজিদে আসবেন। অজু করার সময় কমপক্ষে ২০ সেকেন্ড সাবান দিয়ে হাত ধুবেন।

৪. মুসল্লিগণ মাস্ক পরে মসজিদে আসবেন এবং মসজিদে সংরক্ষিত জায়নামাজ ও টুপি ব্যবহার করতে পারবেন না।

৫. এক কাতার অন্তর অন্তর কাতার করতে হবে। মুসল্লিগণ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে কাতারে দাঁড়াবেন।

৬. শিশু, বয়োবৃদ্ধ, অসুস্থ ব্যক্তি এবং অসুস্থদের সেবায় নিয়োজিত ব্যক্তি ঈদের নামাজের জামাতে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না।

৭. মসজিদে জামায়াত শেষে কোলাকুলি এবং পরস্পর হাত মেলানো যাবে না।

৮. পবিত্র ঈদ উল ফিতরের নামাজ শেষে করোনা ভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য মহান রাব্বুল আলামিনের দরবারে মুসল্লিগণকে নিয়ে দোয়া করার জন্য খতিব ও ইমামগণকে অনুরোধ করা হলো।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।