মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ ইং

শেরপুরে গারো শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে আদিবাসী কিশোর গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৫:৩৮ অপরাহ্ণ , জুলাই ৪, ২০২০

শেরপুরে গারো শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে আদিবাসী কিশোর গ্রেপ্তার

 

সিএনআই ডেস্কঃ শেরপুরের নালিতাবাড়ী উপজেলায় এক গারো শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে ১৭ বছর বয়সী এক আদিবাসী কিশোরকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উপজেলার পোড়াগাঁও ইউনিয়নে ধর্ষণের ঘটনার পর গতকাল শুক্রবার মামলা দায়ের করা হলে রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আজ শনিবার অভিযুক্ত কিশোরকে আদালতে সোপর্দ করেছে পুলিশ। এ ছাড়া ভুক্তভোগী শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শেরপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই কিশোর উপজেলার পশ্চিম সমশ্চুড়া গ্রামের রবিন চিরানের ছেলে। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বন্ধুদের সঙ্গে বেড়াতে গিয়ে বাতকুচি গ্রামের ছয় বছর বয়সী ওই শিশুটিকে চিপস কিনে দেওয়া কথা বলে বাড়ির পাশের লিচু বাগানে নিয়ে যায়।

পরে সেখানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে। এতে ওই শিশুটি কান্নাকাটি করতে করতে বাড়ি ফিরলে স্বজনেরা কারণ জানতে চান। এসময় শিশুটি ঘটনা খুলে বললে তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা অভিযুক্ত কিশোরকে আটক করে মরধর করে ছেড়ে দেয়।

পরদিন শুক্রবার স্থানীয়দের সহযোগিতায় নালিতাবাড়ী থানায় এ সংক্রান্ত বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করেন শিশুটির বাবা। অভিযোগের পর রাতেই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বছির আহমেদ বাদলের নেতৃত্বে ঘটনাস্থলে গিয়ে ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করে।

পরে কয়েক ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আদিবাসী নেতা মি. লুইস নেংমিন্জার সহযোগিতায় কৌশলে অভিযুক্ত কিশোরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ওসি বছির আহমেদ বাদল জানান, এ ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। প্রাথমিকভাবে ওই শিশুকে ধর্ষণের আলমত পাওয়া গেছে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।