শুক্রবার, ৭ই আগস্ট, ২০২০ ইং

দিনাজপুর বিরামপুরে এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: ৮:৫৩ অপরাহ্ণ , জুলাই ৪, ২০২০

দিনাজপুর বিরামপুরে এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

দিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুর বিরামপুরে নিজ ঘরের বৈদ্যতিক ফ্যানের সাথে নাইমা সুলতানা ( মৌটুসী) (৩২) এক নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে বিরামপুর থানা পুলিশ। আজ শনিবার(০৪ই জুলাই) বিকাল ৫ বিরামপুর উপজেলার পৌর এলাকার পল্লবী মহল্লাার ও বিরামপুর থানা রোডের শিবপুর হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল ওয়াহেদ মাষ্টারের ভাড়া দেওয়া বাড়ী থেকে ওই নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত গৃহবধু নাইমা সুলতানা (মৌটুসি) কুড়িগ্রাম সদরের পোটার(চাপরাই) গ্রামের মৃত.আফজাল হোসেনের ছেলে ওয়াটন ইলেকট্রনিক্স কোম্পানীর সেলস কর্মকর্তা সবুজ আলীর স্ত্রী। এ বিষয়ে নিহতের স্বামী সবুজ আলী জানান তার স্ত্রী মৌটুসি সকাল বেলা বাবার বাড়ীতে যাবে এই জন্য তার শাশুড়ী (মৌটুসির মা) সাথে মোবাইলে ঝগড়া হয়। এর পর আর সে কিছু জানে না।

বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.মনিরুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বলেন, শনিবার(০৪ই জুলাই) বিকাল ৫ পল্লবী মহল্লাহর শিবপুর হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আব্দুল ওয়াহেদ মাষ্টারের ভাড়া দেওয়া বাড়ী থেকে ওই নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়। ওই নারীর ঝুলন্ত লাশ দেখে পুলিশকে খবর দেয়
এলাকাবাসি। পরে,পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকাবাসির সহায়তায় ঘরের দরজা ভেঙ্গে লাশ নামিয়ে থানা
হেফাজতে নিয়ে আসে।

বিরামপুর ওসি আরও বলেন, ওই নারীর স্বামী ওয়াল্টন ইলেকন্ট্রনিক কোম্পানীর বিরামপুর এলাকার শাখা সেলস কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত আছেন। ঘটনার দিন স্বামী তার কর্মস্থালে ছিলেন সেখান থেকে বার বার স্ত্রী মৌটুসির সাথে মোবাইলে যোগায়োগ করতে না পেরে বাড়ীতে এসে দেখে মুল দরজা বন্ধ সেই সাথে অনেরক ডাকাডাকির পর দরজা না খুললে প্রতিবেশীদের সহায়তাই দরজা ভেঙ্গে দেখে তার স্ত্রী নিজ স্বয়ন রুমের বৈদ্যতিক ফ্যানে ঝুলে আছে।এই সময় তার স্বামী ও এলাকাবাসি জানতে পারে নাইমা সুলতানা (মৌটুসি) গলায় ফাঁস দিয়েছে তখন পুলিশে খবর দেয় এবং পুলিশ ও এলাকাবাসীর দ্বারা লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের বাবাকে খবর দেওয়া হয়েছে তাদের সাথে কথা বলে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।