মঙ্গলবার, ৪ঠা আগস্ট, ২০২০ ইং

বরিশালে স্থানীয় রেস্তোরাঁয় নিয়ে ছাত্রীর ‘আপত্তিকর’ ভিডিও ধারণ

প্রকাশিত: ৬:৪০ অপরাহ্ণ , জুলাই ১৩, ২০২০

বরিশালে স্থানীয় রেস্তোরাঁয় নিয়ে ছাত্রীর ‘আপত্তিকর’ ভিডিও ধারণ

সিএনআই ডেস্কঃ বরিশালের গৌরনদী উপজেলায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক ছাত্রীর (১৭) আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করার অভিযোগ উঠেছে। পরে সেই ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে চাঁদা দাবি করা হয়।

এ ঘটনায় মাহাদি হাসান আব্দুল্লাহ (২০) নামের এক তরুণকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার কাছ থেকে সেই আপত্তিকর ভিডিও ও ছবি জব্দ করেছে পুলিশ।

গতকাল রোববার বিকেলে পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার হওয়া মাহাদি হাসানকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

হয়রানির শিকার কিশোরী গৌরনদীর পালরদী মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী। আর গ্রেপ্তার মাহাদি হাসান গৌরনদী পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের গেরাকুল এলাকার আবুল হোসেন সরদারের ছেলে।

গৌরনদী মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. তৌহিদুজ্জামান এই তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, দীর্ঘদিন ধরে ওই ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন মাহাদি হাসান।

একপর্যায়ে নানা প্রলোভন দেখিয়ে ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়েন মাহাদি। এরপর স্থানীয় একটি রেস্তোরাঁয় নিয়ে ছাত্রীর সঙ্গে কিছু অন্তরঙ্গ ছবি ও ভিডিও ধারণ করেন তিনি। পরবর্তীতে ওই ছবি ও ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ছাত্রীর কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা চাঁদা নেন মাহাদি।

পরিদর্শক আরও জানান, গত ৭ জুলাই রাতে মাহাদি ওই ছাত্রীর বাড়িতে হাজির হন। এ সময় মুঠোফোনে থাকা ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আরও ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। টাকা না দিলে আপত্তিকর ভিডিও ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন মাহাদি।

এই ঘটনায় গত শনিবার রাতে ভুক্তভোগী ছাত্রী নিজেই বাদী হয়ে গৌরনদী মডেল থানায় মামলা করে। পরে পুলিশ মাহাদিকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।