২৬, আগস্ট, ২০১৯, সোমবার | | ২৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

ফুটবল টুর্নামেন্টের পুরস্কার জ্যান্ত হরিণ-ঘোড়া!

প্রকাশিত: ১০:৫৯ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ৯, ২০১৯

ফুটবল টুর্নামেন্টের পুরস্কার জ্যান্ত হরিণ-ঘোড়া!

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার রহিমেরপাড়া গ্রামে একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়েছে। ওই টুর্নামেন্টকে আকর্ষণীয় করতে প্রথম পুরস্কার ঘোষণা করা হয়েছে জ্যান্ত হরিণ।

এছাড়া ২য় পুরস্কার একটি জ্যান্ত ঘোড়া, ৩য় পুরস্কার একটি খাসি, ৪র্থ পুরস্কার একটি ভেড়া ঘোষণা করা হয়।

এলাকাবাসীর উদ্যোগে ওই টুর্নামেন্টের পোস্টারে বড় বড় অক্ষরে এভাবেই দেয়া আছে পুরস্কারের ঘোষণা।

এ বিষয়ে এলাকাবাসী জানান, ১৫ দিন আগে গ্রামের লোকেরা সীমান্তের ওপার থেকে আসা একটি হরিণ আটকে রাখেন। এরপর এই হরিণকেই প্রথম পুরস্কার ঘোষণা দিয়ে একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করে।

জানতে চাইলে টুর্নামেন্টের আয়োজক কমিটির সভাপতি মো. ছামির আলী বলেন, আটকে রাখা হরিণটি নিয়ে তারা কী করবেন বুঝতে পারছিলেন না। এ জন্য একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। কিন্তু হরিণ পুরস্কার দেয়া নিষিদ্ধ, সেটি তারা জানতেন না।

বন বিভাগের দোয়ারাবাজার উপজেলা বিট কর্মকর্তা সালাহ উদ্দিন জানান, হরিণ পুরস্কার দেওয়ার বিষয়টি এলাকার এক ব্যক্তি মুঠোফোনে সিলেট বিভাগীয় কার্যালয়ে জানান। পরে সেখান থেকে জানানো হয় সুনামগঞ্জ কার্যালয়ে। সুনামগঞ্জের রেঞ্জ কর্মকর্তার নির্দেশে তিনি গতকাল সোমবার বিকালে ওই গ্রামে গিয়ে হরিণটি উদ্ধার করেন।

তিনি বলেন, গ্রামের লোকজন হরিণটি প্রথমে দিতে রাজি হননি। পরে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার কথা বললে তারা সেটি দিতে রাজি হন। রাতেই হরিণটি সিলেটের খাদিমনগর জাতীয় উদ্যানে নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

বন বিভাগের সুনামগঞ্জ জেলা রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. ফখরুল ইসলাম খান বলেন, খেলায় এভাবে হরিণ পুরস্কার দেয়া কোনো ভাবেই আইনসম্মত নয়। ওই গ্রামে হরিণটি আটকের পর প্রথমে আমাদের কেউ জানায়নি। পরে জানতে পেরে আমরা সেটি উদ্ধার করি।

বন বিভাগের কর্মকর্তারা হরিণ নিয়ে যাওয়ায় আদৌ ওই টুর্নামেন্ট আয়োজন তারা করবে কি না তা নিয়ে সংশয়ে আছে কর্তৃপক্ষ।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।