২২, আগস্ট, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

০৭.৬৯ সেকেন্ডে গোল করে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ইতিহাস

প্রকাশিত: ১:৪৯ অপরাহ্ণ , এপ্রিল ২৪, ২০১৯

০৭.৬৯ সেকেন্ডে গোল করে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ইতিহাস

রেফারির ম্যাচ শুরুর বাঁশির আওয়াজ তখনো বাতাসে মিলিয়ে যায়নি। তার মধ্যে নড়েচড়ে বসতে হলো দর্শকদের। চোখের পলক না পড়তেই স্বাগতিক ওয়াটফোর্ডের জালে বল জড়িয়ে দেন সাউদাম্পটন ফরোয়ার্ড শেন লং। মাত্র ০৭.৬৯ সেকেন্ডে গোল করে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ইতিহাস রেকর্ড গড়েছেন এই আইরিশ ফুটবলার।

কিক অফের পরে ডিফেন্ডার ক্রেইথ কাথকার্টকে বল পাস দিয়েছিলেন ওয়াটফোর্ডের আরেক খেলোয়াড়। শেন লং দৌড়ে যান সেদিকে লক্ষ্য করে। কাথকার্ট বল উড়িয়ে মেরেছিলেন সতীর্থদের উদ্দেশ্যে। কিন্তু বল লেগে যায় লংয়ের গায়ে। এক দৌড়ে কাথকার্টকে পেছনে তিনি বল জালে পাঠান গোলরক্ষক বেন ফস্টারের মাথার ওপর দিয়ে।

নতুন ইতিহাস গড়ার দিনে শেন লং ভেঙেছেন লেডলি কিংয়ের রেকর্ড। প্রিমিয়ার লিগে এর আগে সবচেয়ে কম সময়ে গোল করার রেকর্ড ছিল লেডলির। ২০০০-০১ মৌসুমে টটেনহামের জার্সি গায়ে ব্রাডফোর্ডের বিপক্ষে ম্যাচ শুরুর ০৯.৮২ সেকেন্ডে গোল করেছিলেন তিনি। লেডলির বয়স তখন ছিল মাত্র ১৯ বছর।

লং ও কিংয়ের পরে আছেন ইংলিশ কিংবদিন্ত অ্যালেন শিয়েরার নাম। ২০০২-০৩ মৌসুমে এই সাবেক নিউক্যাসল তারকা ম্যানচেস্টার সিটির বিপক্ষে গোল করেছিলেন ১০.৫২ সেকেন্ডে। পরেরটি গত মৌসুমের। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিপক্ষে ১০.৫৪ সেকেন্ডে গোল করেন টটেনহামের ড্যানিশ মিডফিল্ডার ক্রিস্টিয়ান এরিকসন।

অবশ্য ক্যারিয়ারে নতুন রেকর্ড করেও খুশি নন লং। কারণ ব্যবধানটা ধরে রাখতে পারেনি সাউদাম্পটন। শেষ মিনিটের গোলে সমতায় ফিরে ওয়াটফোর্ড।

ইতিহাস গড়ার পর লং বলেন, ‘নতুন রেকর্ড গড়া সত্যি চমৎকার। ১০০ বারের মধ্যে ৯৯ বার ক্লিয়ার করা বলে গোল করা যায় না। কিন্তু আমি তা পেরেছি এবং গোল করেছি।’

প্রতিযোগিতামূলক ফুটবলে এর চেয়েও কম সময়ে গোল করার রেকর্ড আছে। মাত্র ২ সেকেন্ডে গোল করেছিলেন অ্যান্ড্রু অলস্টোন। দুই বছর আগে ইংল্যান্ডের গ্লুস্টার ডিস্ট্রিক্ট সানডে লিগ ডিভিশনে হেম্পস্টেড ও রেনেগেডসের মধ্যে হওয়া ম্যাচটিতে এক কিকেই গোল করেন তিনি। যেটি এখনও বিশ্ব রেকর্ড।

গোলের ভিডিও লিংক…

 


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।