২৩, আগস্ট, ২০১৯, শুক্রবার | | ২১ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

উজানের পানিতে প্লাবিত নিম্নাঞ্চল

প্রকাশিত: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ , জুলাই ১১, ২০১৯

উজানের পানিতে প্লাবিত নিম্নাঞ্চল

উজান থেকে নেমে আসা পানি ও বৃষ্টিতে দেশের বিভিন্ন জেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। লালমনিরহাটে তলিয়ে গেছে ১৫টি গ্রাম। পদ্মা ও যমুনার পানি বেড়ে মানিকগঞ্জের ৪ উপজেলার অন্তত ২ শতাধিক ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এদিকে, সুনামগঞ্জের সুরমা নদীর পানি বেড়ে ৮৪ সেন্টিমিটারের উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

লালমনিরহাট
গত কয়েকদিনের বৃষ্টি আর উজানের পাহাড়ি ঢলে তিস্তার পানি বেড়েছে। এতে নদী তীরবর্তী লালমনিরহাটের নিম্নাঞ্চলের ১৫ টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন পাটগ্রাম, হাতিবান্ধা, আদিতমারী এবং সদর উপজেলার প্রায় ৫ হাজার মানুষ। এদিকে, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা করে ত্রাণের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

কুড়িগ্রাম
কুড়িগ্রামের নদ-নদীতে পানি বাড়ায় সদর উপজেলার ভোগডাঙ্গা, জগমোহনের চরসহ ১২টি গ্রামের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পানিবন্দি কয়েক হাজার মানুষ।

সুনামগঞ্জ
সুনামগঞ্জের ষোলঘর পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বেড়ে বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এরইমধ্যে সদর উপজেলা, বিশ্বম্ভরপুরসহ বেশ কয়েকটি উপজেলার নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এসব এলাকার প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ ছোট বড় ১০টি স্থাপনা নদীতে তলিয়ে গেছে। এদিকে, পরিস্থিতি মোকাবিলায় সবধরনের প্রস্তুতি নেয়ার কথা জানিয়েছে জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড।

মানিকগঞ্জ
পদ্মা ও যমুনার পানি বেড়ে মানিকগঞ্জের হরিরামপুর, শিবালয়, ঘিওর ও দৌলতপুর উপজেলায় তীব্র নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে ভিটে-মাটি হারিয়ে নিঃস্ব হচ্ছেন নদীপাড়ের মানুষ। চরকাটারী, আরিচা ঘাট, বাহাদুরপুরসহ বিভিন্ন এলাকার নদী তীরবর্তী অন্তত ২ শতাধিক ঘরবাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। হুমকির মুখে রয়েছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, হাটবাজারসহ ফসলি জমি। -সময় টিভি


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।