২৪, আগস্ট, ২০১৯, শনিবার | | ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

এবার অ্যাপের মাধ্যমেই পাওয়া যাবে মাছ

প্রকাশিত: ৩:৫৮ অপরাহ্ণ , জুলাই ১৫, ২০১৯

এবার অ্যাপের মাধ্যমেই পাওয়া যাবে মাছ

ডিজিটাল এই যুগে বাংলাদেশে এখন সবই সম্ভব তাইতো মধ্যস্বত্তভোগী ছাড়াই দেশের এক প্রান্তের মাছ অপর প্রান্তের ক্রেতার কাছে পৌঁছে দিতে চালু হলো ডিজিটাল মাছের হাট ‘ফিশ বাংলা’ নামের অ্যাপস। এ অ্যাপস ব্যবহার করে মাছচাষী নিজেই সরাসরি ক্রেতার সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। ফলে একদিকে যেমন মাছ চাষী পাবেন ন্যায্য মূল্য, তেমনি ক্রেতাও তাজা মাছ খেয়ে উপকৃত হবেন।

শনিবার ঢাকায় এ প্ল্যাটফর্মটি উদ্বোধন করেন এর উদ্যোক্তারা।অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন স্থানের মাছের আড়ৎদার, চাষী,জেলে এবং ক্রেতা-বিক্রেতারা মাছ নিয়ে তাদের বিভিন্ন অভিজ্ঞতার তুলে ধরেন।ফিশ বাংলার উদ্যোক্তা মোহাম্মদ আশরাফুজ্জামান বলেন, ‘ফিশ বাংলা অ্যাপের মাধ্যমে মাছ বিক্রেতারা ও ক্রেতারা মাছ কেনা-বেচার সুযোগ পাচ্ছেন।

অনলাইন ভিত্তিক মাছ বিক্রেতা প্ল্যাটফর্ম হিসেবে মেট্রো এলাকার পাশাপাশি দেশের যেকোনো এলাকায় কুরিয়ার সেবার মাধ্যমে মাছ পৌঁছে দেবে। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে গ্রাহক,সরাসরি মাছ চাষী ও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সম্পক তৈরি করে দেয়।এ নিয়ে অনেকদিন ধরে মাঠপর্যায়ে গবেষণা করা হয়েছে। তারা তাজা ও সতেজ মাছ সরবরাহ নিশ্চিত করছেন। ক্রেতাকে চাষীর সঙ্গে সরাসরি যোগাযোগ করিয়ে দিচ্ছে।

ক্রেতারা আগে ফরমাশ দিলে ফিশ বাংলা তা নিশ্চিত হয়ে বিক্রেতার সঙ্গে যোগাযোগ করবে। বিক্রেতার অর্থ পরিশোধ করবে ফিশ বাংলা। এর বাইরে রান্নার উপযোগী মাছের মতো বাড়তি সুবিধা যুক্ত করবে ফিশবাংলা।প্ল্যাটফর্ম তৈরিতে সহযোগিতা করছে ওয়ার্ল্ড ফিশ, ইউএসএআইডি। ফিশবাংলা থেকে মাছের অর্ডার দেওয়া যাবে তাদের ওয়েবসাইড  www.fishbangla.com ও ফিশবাংলা অ্যাপ থেকে। গুগল প্লেস্টোরে পাওয়া যাবে অ্যাপসটি।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।