২৪, আগস্ট, ২০১৯, শনিবার | | ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

গ্রাহক ও রাইডারদের সুবিধার্থে সহজের নতুন উদ্যোগ

প্রকাশিত: ৪:০৩ অপরাহ্ণ , আগস্ট ১, ২০১৯

গ্রাহক ও রাইডারদের সুবিধার্থে সহজের নতুন উদ্যোগ

সাধারণ মানুষ ও রাইডারদের দুর্ভোগ ও কষ্ট লাঘবের লক্ষ্যে নতুন একটি উদ্যোগ নিয়েছে ‘সহজ’। এর আওতায় শহরজুড়ে বসিয়েছে দুই শতাধিক দৃষ্টিনন্দন ছাতা এবং গুলশান, বনানী, মিরপুর, চানখানপুর ও নীলক্ষেতসহ ২০টিরও বেশি জায়গায় সহজ পয়েন্ট। বুধবার (৩১ জুলাই) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

এতে বলা হয়, সবার জন্য সহজের সেবা নিশ্চিত করতে ঢাকা শহরের বিভিন্ন জনবহুল এলাকায় সহজ পয়েন্ট রাখা হয়েছে, যার মাধ্যমে সহজ রাইডার ও গ্রাহকদের হাতের নাগালে চলে এসেছে সহজের মোবাইল গ্রাহক সেবা।

এই পয়েন্টগুলোতে নিশ্চিত করা হচ্ছে গ্রাহক সেবা, তাৎক্ষণিন নিবন্ধন সুবিধা, পেমেন্ট সংক্রান্ত সহায়তা আর আয়ের ব্যাপারে সঠিক দিকনির্দেশনা। শুধু তাই নয়, নতুন রাইডারদের রাইড শেয়ারিং সম্পর্কে সহায়তাও দেওয়া হচ্ছে এসব পয়েন্ট থেকে। সড়ক নিরাপত্তার বিষয়ে সতর্ক করার পাশাপাশি সকল নিয়মকানুন মেনে চলার ব্যাপারে আগ্রহী করে তোলা হচ্ছে এ পয়েন্টগুলোর মাধ্যমে।

সহজ পয়েন্ট থেকে প্রতিদিন শত শত গ্রাহক ও রাইডারের মাঝে নানাবিধ সহায়তা প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে। পাশাপাশি, চলার পথে গ্রাহক ও চালকরা জিরিয়ে নিতে পারছে রোদে কিংবা তাৎক্ষণিক আশ্রয় নিতে পারছেন হঠাৎ বৃষ্টিতে।

এমন উদ্যোগ নিয়ে কথা হয় প্রতিষ্ঠানটির বিপণন পরিচালক শেজামী খলিল বলেন, আমরা সবসময় চেষ্টা করি আমাদের গ্রাহক ও রাইডারদের জন্য নানা সুবিধা নিয়ে আসতে। সহজ পয়েন্টের উদ্যোগ গ্রহণের পেছনে এ ভাবনাটাই সবচেয়ে বেশি কাজ করেছে। নিয়ত উদ্ভাবন ও গ্রাহকসেবার লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়াই আমাদের অন্যতম উদ্দেশ্য।

আমরা বিশ্বাস করি, মানসম্পন্ন সেবাদান আমাদের কার্যক্রমের মূলভিত্তি। তাই, ‘সহজ সবার জন্য’ এই মূলমন্ত্র ধারণ করে সবার জীবন সহজ করার লক্ষ্যে সহজ প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছে। গ্রাহক আস্থা ধরে রাখতে ভবিষ্যতে এমন আরো অভিনব সেবা ও উদ্যোগ নিয়ে আসবে সহজ।

সহজ পয়েন্টে সেবা নিতে আসা এক রাইডার বলেন, আমাদের রাইডারদের অনেক সময় তাৎক্ষণিক সহায়তার প্রয়োজন হয়। সেক্ষত্রে, প্রধান অফিসে গিয়ে সেবা গ্রহণ করা অনেক সময় হয়ে ওঠে না। সহজ পয়েন্ট আমাদের এ অসুবিধা দূর করে দিয়েছে। ঢাকার ব্যস্ত অনেক জায়গাতেই সহজের পয়েন্ট রয়েছে। এখন চাইলেই আমি চলার পথে তাৎক্ষণিক সেবা নিয়ে নিতে পারি।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।