২৪, আগস্ট, ২০১৯, শনিবার | | ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

ঈদের আনন্দ নেই, ছেলের কবরে অঝরে কাঁদছে মা

প্রকাশিত: ১২:৩৩ পূর্বাহ্ণ , আগস্ট ১২, ২০১৯

ঈদের আনন্দ নেই, ছেলের কবরে অঝরে কাঁদছে মা

বরগুনায় প্রকাশ্যে কুপিয়ে নিহত হওয়া রিফাত শরীফের বাড়িতে ঈদের অনন্দ নেই। সবাই যখন কোরবানির গরু নিয়ে মাতোয়ারা তখন শোকের মাতাম চলছে রিফাতের বাড়িতে। গেল ঈদেও যে ছেলে বাড়িসহ পাড়াময় ঘুরে বেড়িয়েছে আজ সে সংবাদের শিরোনাম ছাড়া আর কিছুই নয়।

ঈদ উপলক্ষে রান্নাবান্নাসহ অন্যসব প্রস্তুতি রেখে রিফাতের মা ডেইজি বেগম এখন ছেলের কবরের পাশে কেঁদে সময় পার করছেন। রিফাতকে ছাড়া প্রথম ঈদ করছেন দুলাল শরীফ ও তার পরিবার। বিষয়টি মেনে নিতে পারছেন না রিফাতের স্বজনরাও। রিফাতের লবণগোলা গ্রামের বাড়িতে ঈদ আনন্দের ছিটেফোটাও নেই, চারিদিকে সুনসান নীরবতা। গত ঈদে রিফাতের ছুটোছুটির কথা স্মরণ করে কান্নায় ভেঙে পড়েন মা ডেইজি বেগম।

রিফাতের মা ডেইজি বেগম বলেছেন, আমার বাবা কোরবানিতে রুটি খাইত। কলিজা ভুনা খাইত। এখন কার জন্য এসব রাধব আমি! কি দরকার এই ঈদের! খুব মা ভক্ত ছিল রিফাত। রিফাত নিজ হাতে তাকে খাইয়ে দিতেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও বলেছেন, আমার ছেলেরে যারা কুপিয়ে মেরেছে, তাদের কেউ যেন রেহাই না পায়। আমি আমার ছেলে হত্যার বিচার দেখে মরতে চাই। খুনিদের ফাঁসি চাই।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জুন বরগুনা সরকারি কলেজের গেটের সামনে রাস্তায় প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় শাহনেওয়াজ রিফাত শরীফকে (২৩)। তিনি সদর উপজেলার বড় লবণগোলা গ্রামের দুলাল শরীফের ছেলে। হত্যা দৃশ্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। রিফাত হত্যার ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। গ্রেপ্তার হয়েছেন রিফাতের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি। আরও গ্রেপ্তার রয়েছেন এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ১২ আসামি।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।