১৭, অক্টোবর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৭ সফর ১৪৪১

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পরমাণু যুদ্ধ উসকে দিচ্ছেন প্রিয়াংকা!

প্রকাশিত: ১১:১৯ অপরাহ্ণ , আগস্ট ১৩, ২০১৯

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পরমাণু যুদ্ধ উসকে দিচ্ছেন প্রিয়াংকা!

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে চলমান উত্তেজনার মধ্যে সামাজিক মাধ্যমে মন্তব্যের মাধ্যমে পারমাণবিক যুদ্ধ উসকে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে বলিউড অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপরার বিরুদ্ধে। ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ানের খবরে এমন তথ্য দিয়েছে।

হলিউডে নাম লেখানোর আগে বলিউডে অভিনয় করে খ্যাতি পেয়েছেন সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী। এবার লস অ্যাঞ্জেলেসের একটি প্রসাধনী বিষয়ক অনুষ্ঠানে এক দর্শকের মুখোমুখি হতে হয়েছে, যা তার জন্য কিছুটা বিব্রতকরও ছিল।

প্রিয়াংকা চোপড়াকে মূল আকর্ষণ করে বিউটিকোন প্যানেলের প্রশ্ন ও তার জবাবের সময় মাইক্রোফোন চলে যায় এক তরুণির হাতে। টুইটারে যার নাম আয়েশা মালিক।

প্রশ্ন পর্বে আয়েশা মালিক বলেন, মানবতা নিয়ে আপনি যে কথা বলছেন, তা শুনতে এক ধরনের কঠিনই লাগছে। কারণ আপনার প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের একজন নাগরিক হিসেবে, আমি জানি, আপনি কিছুটা প্রতারক।

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি প্রিয়াংকা চোপড়ার অফিসিয়াল টুইটার একাউন্ট থেকে করা একটি পোস্টের কথা উল্লেখ করেন আয়েশা। ওই পোস্টে লেখা ছিল, জয় হিন্দ, যার অর্থ দাঁড়ায় ভারতের বিজয়।

বিরোধপূর্ণ কাশ্মীর অঞ্চল নিয়ে পরমাণু শক্তিধর ভারত-পাকিস্তান তখন আকাশযুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিল। আয়েশা মালিক বলেন, আপনি ইউনিসেফের একজন শান্তির দূত। কিন্তু পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পরমাণু যুদ্ধ উসকে দিচ্ছেন আপনি। এতে কেউ-ই বিজয়ী না।

তিনি বলেন, কয়েক কোটি পাকিস্তানি আপনার ভক্ত। তারা বলিউডে আপনার অভিনয়কে সমর্থন করেন।

এসময় কর্মীরা আয়েশা মালিকের কাছ থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেন। তবে মার্কিন পপ তারকা নিক জোনাসের স্ত্রী প্রিয়াংকা বলেন, আমি আপনার কথা শুনতে পেয়েছি। আপনি আবেগে আপ্লুত হয়ে পড়েছেন।

৩৭ বছর বয়সী প্রিয়াংকা বলেন, যুদ্ধ এমন কিছু না, যেটার প্রতি আমি অনুরক্ত। কিন্তু আমি দেশপ্রেমিক। আমি মনে করি, দুই বিরোধী শক্তির মাঝ দিয়ে চলতে আমাদের একটি মধ্যস্থতার পথ দরকার।

এই অভিনেত্রী বলেন, এখন তুমি যেভাবে আমার কাছে এসেছ, চিৎকার করো না, মেয়ে। আমরা সবাই এখানে ভালোবাসার জন্য এসেছি। চিৎকার করো না। নিজেকে বিব্রত করো না।

‘তোমার প্রবল আগ্রহ, প্রশ্ন ও কণ্ঠের জন্য আমার তরফ থেকে ধন্যবাদ।’


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।