২২, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, রোববার | | ২২ মুহররম ১৪৪১

বিচারপতিদের অব্যাহতির বিষয়ে কিছুই জানেন না আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৩:৩৯ অপরাহ্ণ , আগস্ট ২২, ২০১৯

বিচারপতিদের অব্যাহতির বিষয়ে কিছুই জানেন না আইনমন্ত্রী

সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের তিন বিচারপতিকে দায়িত্ব থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেওয়া হলেও এ বিষয়ে কিছুই জানেন না আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলনে কেন্দ্রে এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন মন্ত্রী। ‘ন্যাশনাল জাস্টিস অডিট বাংলাদেশ: ফলাফল উপস্থাপন ও আলোচনা’ অনুষ্ঠানটি আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং রুল অফ ল প্রোগ্রাম জিআইজেড বাংলাদেশ যৌথভাবে আয়োজন করে।

অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে আনিসুল হক বলেন, তিন বিচারপতিকে রিচারিক দায়িত্ব পালন থেকে বিরত থাকার বিষয়ে আমি কিছুই জানি না। এর সত্যতা ও কারণ আমাকে জানতে হবে। আগে বিষয়টি সম্পর্কে নিজে অবহিত হই, তারপর এ বিষয়ে কথা বলব। আর আমার না জানার প্রধান কারণ হলো বিচার বিভাগ সম্পূর্ণ স্বাধীন। এসব পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য আমার সঙ্গে পরামর্শের প্রয়োজন নেই।

প্রধানমন্ত্রী ওপর ১৯ বার হামলার পরিকল্পনাকারীদের বিচারের বিষয়ে সরকার কী করছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যারা অপরাধ করার জন্য পরিকল্পনা করেন তাদেরকে কিন্তু আইনের ভাষায় পরিকল্পনাকারী বলা হয় না তাদের বলা হয় ষড়যন্ত্রকারী। নিশ্চয়ই ষড়যন্ত্রকারীদের আইনের আওতায় আনা হবে। তবে সেটা সম্পূর্ণ নির্ভর করবে তদন্তের ওপর। এই বিচার প্রক্রিয়া চলছে এবং সামনেও অব্যাহত থাকবে। বিচারহীনতা সংস্কৃতি যেটা ছিল, সেটা গত। আওয়ামী লীগের আমলে যে অন্যায় করবে তার বিচার হবে।

এর আগে অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা জাজদের মামলার জট কমানোর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ৩১, ৩২ ও ৩৫ লাখ যেটাই বলেন না কেন এই সংখ্যা বিশাল মামলা জটের বিষয়টি বোঝায়। দ্রুত এই মামলা জট কমিয়ে আনতে হবে। আমরা চাই, জনগণ যেন বিচার পায়। আমরা চাই না, জনগণ বিচার না পেয়ে রাস্তায় চলে যাক। সেই কারণে আমাদের বুঝতে হবে, দ্রুত এই মামলার জট নিরসনে করা দরকার।

আনিসুল হক বলেন, এখনো ৮৭ শতাংশ মানুষ বিচার ব্যবস্থায় আস্থা রাখছে। কিন্তু মামলা নিরসনে যদি এত দেরি হয়, তাহলে ৩১ লাখ আগামী বছর ৬২ লাখ মামলা হয়ে যাবে। তাহলে কিন্তু মানুষের বিচার ব্যবস্থা থেকে আস্থা উঠে যাবে। তখন এখন যে ৮৭ শতাংশ মানুষ বিচার ব্যবস্থায় বিশ্বাস রাখে পরে সেটি কিন্তু ৩৭ শতাংশে কমে আসবে। এটা আমরা কোনভাবেই চাই না।

আইন ও বিচার বিভাগের সচিব মোহাম্মদ গোলাম সারোয়ারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশস্থ জার্মান দূতাবাসের উপ-রাষ্ট্রদূত বুর্কহার্ড দুকফ্রে।

সিএনআই/এইচআর


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।