১৭, অক্টোবর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৭ সফর ১৪৪১

রংপুর-৩ আসনে সাদ এরশাদকে কে প্রার্থী করা হলে মাঠে থাকবে না জাপা!

প্রকাশিত: ৫:৫১ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৯

রংপুর-৩ আসনে সাদ এরশাদকে কে প্রার্থী করা হলে মাঠে থাকবে না জাপা!
রংপুর প্রতিনিধিঃ রংপুর -৩ আসনের উপ নির্বাচনে এরশাদ পুত্র সাদ এরশাদকে কে চূড়ান্ত করা হলে তার পক্ষে কাজ করবে না বলে হুমকি দিয়েছেন জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য, রংপুর  মহানগর জাপার সভাপতি ও সিটি মেয়র মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তফা।আজ সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ ঘোষণা দেন তিনি।এসময় তিনি বলেন এরশাদের এ আসনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এই আসনে জনগণের সাথে সম্পৃক্ততা আছে এমন কাউকে মনোনয়ন দেয়া হলে তা দলের জন্যই ভাল। সাদের জয়ের সম্ভাবনা নেই ইঙ্গিত করে তিনি বলেন নতুন কাউকে প্রার্থী করা হলে তা হবে দলের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।  এ সময় তিনি বলেন এই আসনে জাপার তিনজন প্রার্থী আছে যাদেরকে ভোটাররা কমবেশি সবাই চেনেন, যাদের সাথে জনগণের সম্পৃক্ততা আছে এদের মধ্য থেকে কাউকে প্রার্থী করা হলে কোন আপত্তি থাকবেনা।
গত কয়েকদিনে জাপা চেয়ারম্যান জি এম কাদের এবং তার ভাবি রওশন এরশাদের দরকষাকষির পর সাদের  মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে ইঙ্গিত পেলে ধরনের হুমকি দেন তিনি।তিনি আরও বলেন যারা চাঁদ এরশাদকে প্রার্থী করার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন নির্বাচনের সময় তাদেরকেই রংপুরে এসে নির্বাচন করতে হবে রংপুরের তৃণমূল নেতাকর্মীরা তাদের পক্ষে কাজ করবে না। তাই দলের নীতিনির্ধারকদের কাছে এমন একজনকে প্রার্থী করার জন্য আহ্বান করেছেন যাকে জনগণ সবাই চিনেন, জানেন।এদিকে সাদ এরশাদকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে তার কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে এরশাদের ভাতিজা সাবেক সংসদ সদস্য মকবুল আসিফ শাহরিয়ারের কর্মী ও সমর্থকরা।এতে জাপার দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে তারপর তারা রংপুরের পাগলাপীরে সাদের কুশপুত্তলিকা দাহ করে।উল্লেখ্য, গত ১৪ জুলাই এরশাদের মৃত্যুতে আসনটি শূন্য ঘোষণা করা হয়। নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী ৫ অক্টোবর ভোটগ্রহণ হবে। মনোনয়ন দাখিলের শেষ তারিখ ৯ সেপ্টেম্বর। যাচাই-বাছাই ১১ সেপ্টেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ১৬ সেপ্টেম্বর। ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ৫ অক্টোবর।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।