১৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ১৬ মুহররম ১৪৪১

‘বাচ্চাদের মতো কান্না শুনলাম, কথা বলতে পারিনি, ইউসুফের স্ত্রী আর নেই‘

প্রকাশিত: ৩:২৩ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

‘বাচ্চাদের মতো কান্না শুনলাম, কথা বলতে পারিনি, ইউসুফের স্ত্রী আর নেই‘

সিএনআই ডেস্ক : রাজধানীর উত্তরায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফের স্ত্রী তানিয়া মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বুধবার সন্ধ্যা ৭টার পর রাজধানীর উত্তরার বাসায় অগ্নিদগ্ধ হলে তাঁকে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। পরে সেখান থেকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচে) নেওয়া হয়। সেখানেই আজ তিনি মারা যান।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবির মিলন। তিনি জানান, ডেডবডি এখন সিএমএইচ মরচ্যুয়ারিতে আছে। এরপর উত্তরা বাসায় নিয়ে যাওয়া হবে। কোথায় দাফন হবে তা ঠিক হয়নি।

এছাড়া বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের সদস্য অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবির মিলন ফেসবুকে লিখেছেন, ‘বাচ্চাদের মতো কান্না শুনলাম। কথা বলতে পারিনি। মাথা কাজ করছে না। ইউসুফের স্ত্রী আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। ‘

ফায়ার সার্ভিস সদর দপ্তর থেকে জানানো হয়, বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর উত্তরায় ৬ নম্বর সেক্টরের ৪ নম্বর সড়কের ১ নম্বর বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ৬ তলা ওই ভবনের দোতলায় আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে বাসার ভেতর থেকে ওই নারীকে দগ্ধ অবস্থায় বের করে আনা হয়।

তবে আগুনের কারণ এখনো জানা যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে বাসার গ্যাস থেকে আগুনের সূত্রপাত হতে পারে। আগুনের খবর পেয়ে তাদের একটি ইউনিট সেখানে যায়। কিন্তু তারা পৌঁছার আগেই বাড়ির লোকজন আগুন নিভিয়ে ফেলে।

অন্যদিকে, উত্তরা পূর্ব থানায় কর্তব্যরত কর্মকর্তা এসআই আরাফাত জানান, আমরা আগুন লাগার কোন খবর এখনো পাইনি।

মুহাম্মদ ইউসুফ যিনি বানসুরি এম ইউসুফ নামে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচিত। ভালোবেসে অনেকে তাকে মিয়া ভাই বলেও ডাকেন। শাহজালাল বিমানবন্দরের অনিয়ম রোধ ও শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে কার্যকর ভূমিকা পালন করে আলোচনা আসেন ইউসুফ। পরে তাঁকে দুদক পরিচালক করা হয় তাকে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।