১৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ১৬ মুহররম ১৪৪১

প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

প্রকাশিত: ৫:৪৮ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

প্রকাশ্যে ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা

নরসিংদীতে প্রকাশ্য দিবালোকে রং ব্যবসায়ী রুহুল আমীনকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ৭ জনকে আসামি করে সদর মডেল থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে নিহতের বড় ভাই বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মামলা প্রধান আসামি ছারোয়ারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মামলার অভিযুক্তরা হলো বৌয়াকুড় এলাকার মৃত সেকেন্দার আলী মাস্টারের ডিস ব্যাবসায়ী ছেলে ছারোয়ার (৫৫), তার ছেলে তানভির (২৮), তানজিদ (২৪), পশ্চিম ব্রাক্ষন্দী এলাকার আকবরের ছেলে ছোটন (৩৪), দাশপাড়া এলাকার রুহুল আীনের ছেলে মনির (২৮), বৌয়াকুড় এলাকার নয়ন (২৩) ও পশ্চিম ব্রাক্ষন্দী এলাকার বাচ্চু মিয়ার ছেলে হৃদয়।

মামলা সূত্রে জানা যায়, সংগীতা এলাকায় ডিস ব্যবসা করে আসছিলো বৌয়াকুড় এলাকার ছারোয়ার। গত দুই বছর আগে ছোটন ও নিহত রুহুল আমীন ফিড ভিত্তিতে পার্টনারশিপে সারোয়ারের ডিস ব্যবসায় যুক্ত হয়। কিন্তু এক বছর যাবৎ অভিযুক্ত ছোটন নিহত রুহুলকে কোন প্রকার লভ্যাংশ দিতো না। এ নিয়ে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ও কথাকাটাকাটি হয়। এর জেরে গত সপ্তাহে ছোটন দলবল নিয়ে রুহুলের বাড়িতে গিয়ে রুহুলকে মেরে ফেলার হুমকি প্রদান করে।

পরে বুধবার সকাল ১০টার দিকে অভিযুক্ত মনির রুহুলকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে আসে। পরে জবা ট্রেক্সটাইল মিল সংলগ্ন একটি মাঠে নিয়ে যায়। সেখানে তানভির, তানজিদ হৃদয়, ছোটন ও মনির রুহুলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারী কোপাতে থাকে। এ সময় সে মাটিতে লুটিয়ে পরে। পরে তার আত্মচিৎকারে আশপাশের লোক এগিয়ে এলে তারা পালিয়ে যায়। সেখান থেকে রুহুলকে উদ্ধার করে জেলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই শরিফুল বাদি হয়ে ৭ জনকে আসামি করে সদর মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে গ্রেপ্তার অভিযানে নামে পুলিশ। পরে ব্যাপারী পাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে মামলার প্রধান আসামি ছারোয়ারকে গ্রেপ্তার করা হয়।

সদর মডেল থানার ওসি সৈয়দুজ্জামান বলেন, নিহতের ভাই শরিফুল বাদী হয়ে ছারোয়ারকে প্রধান আসামি করে ৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে। এর মধ্যে ছারোয়ারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।