১৭, অক্টোবর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৭ সফর ১৪৪১

‘চুনোপুঁটি-রাঘববোয়াল বুঝি না, অপরাধীরা ধরা পড়বেই’!

প্রকাশিত: ৪:৫৯ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

‘চুনোপুঁটি-রাঘববোয়াল বুঝি না, অপরাধীরা ধরা পড়বেই’!

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, চুনোপুঁটি-রাঘববোয়াল বলতে কিছু বুঝি না। গডফাদার-গ্র্যান্ডফাদার যারাই অপরাধ করবে, তাদেরই শাস্তি পেতে হবে। অপরাধে জড়িত হওয়ায় আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যকেও ছাড় দেয়া হয়নি। তাকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।

চাঁদাবাজি, দুর্নীতি ও মাদকবিরোধী চলমান অভিযানের বিষয়ে সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের নিজ সভাকক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, অবৈধ ব্যবসা ও টেন্ডারবাজির মতো অপকর্মের বিরুদ্ধে সরকারের এই অভিযান চলছে। যেখান থেকেই তথ্য আসছে সেই তথ্যের ভিত্তিতে আমাদের গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করছে। গডফাদার বা গ্র্যান্ডফাদার বলতে আমরা কাউকে চিনি না। যে অপরাধ করবে তাকেই শাস্তি পেতে হবে।

অপরাধীরা যেন দেশ ছাড়তে না পারে, সে জন্য বিমানবন্দরে রেড অ্যালার্ট জারি করবেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘রেড অ্যালার্ট জারি করার কিছু নেই। ইমিগ্রেশনে সবসময় অপরাধীদের একটি তালিকা থাকে যেন তারা পালিয়ে যেতে না পারে।

‘রাজনীতিবিদ বা যেই হোক, যারা অপরাধ করেছে, তাদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসছি। যেই আপরাধ করবে, আইনের চোখে সেই অপরাধী, তাদেরই আইনের আওতায় আনা হবে’-যোগ করেন আসাদুজ্জামান কামাল।

‘আর গডফাদার, গ্র্যান্ডফাদার- এগুলো আমাদের কাছে কিছু নেই। আমরা চিনি অপরাধী। অপরাধী যেই হোক, তাকে আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসব।’

গ্রেফতার ব্যক্তিদের মাস্টারমাইন্ডদেরও আইনের আওতায় আনা হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যে-ই অপকর্ম করছে, তাকেই আমরা আইনের আওতায় নিয়ে আসছি। চুনোপুঁটি আর রাঘববোয়াল বলতে আমাদের কাছে কিছু নেই। আমাদের কাছে সবাই সমান। রাঘববোয়াল যদি আপরাধ করে থাকে তাকেও ধরছি। এ ক্ষেত্রে আমাদের সংসদ সদস্যারাও বাদ যাচ্ছেন না।

জনপ্রিয়তা বাড়াতে সরকার এ পদক্ষেপ নিয়েছে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, আপনার কি মনে হয় প্রধানমন্ত্রীর জনপ্রিয়তার ঘাটতি রয়েছে? উনি জনপ্রিয়তার জন্য নয়, সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য এখন আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন। সুশাসন প্রতিষ্ঠা করতে হলে এসব অবৈধ ব্যবসা বা যারা অবৈধভাবে অন্যায় কিছু করতে চায়, সেগুলোকে দমন করতে হবে। সে জন্যই আমাদের এ প্রচেষ্টা চলছে।

এ অভিযান শুধু ঢাকাতেই সীমাবদ্ধ থাকবে না কি জেলাপর্যায়েও চালানো হবে, এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কোথাও সীমাবদ্ধ থাকবে না। যেখানে অপরাধ হবে সেখানেই অভিযান চলবে। যেখানে দেখব অপরাধী, তাদেরই আমরা ধরে আনব।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।