১৯, অক্টোবর, ২০১৯, শনিবার | | ১৯ সফর ১৪৪১

‘পালসার এনএস১৬০এফআই-এবিএস’ উন্মোচন

প্রকাশিত: ৫:২৭ অপরাহ্ণ , সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯

‘পালসার এনএস১৬০এফআই-এবিএস’ উন্মোচন

দেশের শীর্ষস্থানীয় অটোমোবাইল আমদানি, প্রস্তুতকারী এবং বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান উত্তরা মোটর্স রাজধানী ঢাকার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বাজাজ পালসার এনএস১৬০ এফআই-এবিএস দেশের বাজারে উন্মোচন করেছে। বাজাজ অটো’র নতুন এই মোটরসাইকেলটিতে ফুয়েল ইনজেকশন এবং অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। মোটরসাইকেলটি ক্রয় করা যাবে ২,৫৪,৯০০ টাকায়।

সেরা প্রযুক্তি সমৃদ্ধ পালসার এনএস১৬০ এফআই-এবিএস মোটরসাইকেলটিতে রয়েছে পেরিমিটার ফ্রেম, ৪-ভ্যালভ, ফুয়েল ইনজেকটেড ডিটিএস-আই ইঞ্জিন, আন্ডারবেলী একজস্ট, নাইট্রোক্স মনো সাসপেনশন, টিউবলেস টায়ার এবং স্ট্রিট ফাইটার নেকেড ডিজাইন, যা মোটরসাইকেলটিকে পরিণত করেছে একটি সত্যিকার স্পোর্টস বাইকে।

মোটরসাইকেলটির ডিটিএস-আই ইঞ্জিন ৮৫০০ আরপিএমে ১৫.০২ পিএস এবং ৬০০০ আরপিএমে ১৪.১২ এনএম টর্কের শক্তি উৎপাদনে সক্ষম। হাইড্রোলিক দ্বারা পরিচালিত অ্যান্টি-লক ব্রেকিং সিস্টেম প্রযুক্তির মোটরসাইকেলটির সামনের চাকায় ২৬০ মি.মি. ডিস্ক ও পেছনের চাকায় ২৩০ মি.মি. ডিস্ক রয়েছে। বাইকটিতে সর্বোচ্চ ১২ লিটার পর্যন্ত তেল ধারণের ফুয়েল ট্যাঙ্ক রয়েছে যা দীর্ঘ পথ পাড়ি দেয়ার ক্ষেত্রে সহায়ক।

উন্মোচন অনুষ্ঠানে উত্তরা মোটর্সের চেয়ারম্যান ও ম্যানেজিং ডিরেক্টর মতিউর রহমান বলেন, “বাংলাদেশে উচ্চগতি ও শক্তিশালী মোটরসাইকেলের চাহিদা বৃদ্ধির পাশাপাশি উন্নত প্রযুক্তি এবং দক্ষতাসম্পন্ন প্রিমিয়াম বাইকের প্রতিও ক্রেতাদের আগ্রহ বাড়ছে। এই জন্য উত্তরা মোটর্স বাংলাদেশে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন মডেলের বাজাজ মোটরসাইকেল নিয়ে আসছে, তবে যারা সত্যিকারের ব্লু-স্পোর্টস বাইক খুঁজছেন তাদের চাহিদা মেটাতে সক্ষম হবে পালসার এনএস১৬০ এফআই-এবিএস ।”

অনুষ্ঠানে ভারতের বাজাজ অটো লিমিটেড-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মিলিন্দ বাদে বলেন, “বাংলাদেশের বাজার আমাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কার্যত, বিশ্বের দ্রুত বর্ধনশীল মোটরসাইকেল বাজারগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। পালসার মোটরসাইকেল সবসময় সবশ্রেণির মানুষের কথা বিবেচনা করে তৈরি হয়। ফুয়েল ইনজেকশন এবং অ্যান্টি-লক ব্রেকিং (এবিএস) সিস্টেম প্রযুক্তির মোটরসাইকেলটি বাংলাদেশের স্পোর্টস বাইকারদের জন্য দুর্দান্ত পারফরম্যান্স এবং কন্ট্রোলিং সুবিধা দেবে। এর বৈশিষ্ট্যগুলো চালকদের আত্মবিশ্বাসের সাথে যে কোন যাত্রা শুরু করতে এবং নির্ভয়ে চলাচলে প্রেরণা যোগাবে।”

দেশব্যাপী উত্তরা মোটর্সের সবকটি শোরুম থেকে পালসার এনএস১৬০ এফআই-এবিএস প্রি-বুকিং দেয়া যাবে । প্রি-বুকিং দেয়া মোটরসাইকেলগুলো ২-৩ সপ্তাহের মধ্যে হস্তান্তর করা হবে। উল্লেখ্য, উত্তরা মোটর্স সম্প্রতি দেশের বাজারে নিয়ে এসেছে এনএস ১৬০ এর টুইন ডিস্ক ভার্সন। মোটরসাইকেল প্রেমীদের মাঝে বাইকটি অভূতপূর্ব সাড়া ফেলেছে। মোটরসাইকেলটির মূল্য ধরা হয়েছে ১,৮৬,৯০০ টাকা। মোটরসাইকেলটি প্যাশন রেড+সাটিন ব্ল্যাক, পার্ল মেটালিক হোয়াইট+ সাটিন ব্ল্যাক, গ্লসি পিউটার গ্রে+ সাটিন ব্ল্যাক, সেফায়ার ব্লু+ সাটিন ব্ল্যাক- এ চারটি রংয়ে পাওয়া যাবে।

 


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।