১৪, নভেম্বর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

মোড়ক উম্নোচিত হলো ‘ব্লু বিপ্লব’ শীর্ষক বইটির

প্রকাশিত: ৭:৩২ অপরাহ্ণ , অক্টোবর ২৮, ২০১৯

মোড়ক উম্নোচিত হলো ‘ব্লু বিপ্লব’ শীর্ষক বইটির

সিএনআই  ডেস্ক – সম্পদের অবদান নিয়ে ঢাকার একটি হোটেলে International Food Policy Research Institute-এর সহযোগিতায় “The Making of a Blue Revolution in Bangladesh: Enablers, Impacts and the Path Ahead for Aquaculture” শীর্ষক বইটির মোড়ক উম্নোচন হয়। মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান, সম্মানিত অতিথি ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীর বিক্রম, বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. আহমদ কায়কাউস।

মাছ বাংলাদেশের প্রোটিনের অন্যতম প্রধান উৎস। বিগত ২০ বছরে মৎস উৎপাদনে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে। উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য পুরুষ-নারী, ধনী-গরিব নির্বিশেষে মাছ খাওয়ার প্রবণতা বেড়েছে। গ্রামীণ কর্মসংস্থান সৃষ্টি, প্রোটিনের উৎস সরবরাহ ও মাছ উৎপাদন বৃদ্ধি-এই বিষয়টি সার্বিকভাবে নীল বিপ্লব (BLUE REVOLUTION) বলা যেতে পারে। বইটিতে ব্যাপক অর্থে ১. ভ্যালু চেইন (Value Chain) নির্ধারক, ২. দারিদ্রতা ও খাদ্য নিরাপত্তায় প্রভাব, ৩. বাংলাদেশ জলজ চাষের (মৎস চাষের) মধ্য মেয়াদী সম্ভাবনা-এই তিনটি বিষয় আলোচিত হয়েছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, সমুদ্র সম্পদ কিভাবে আমাদের সমৃদ্ধিতে অবদান রাখতে পারে তা নিয়ে গবেষণা প্রয়োজন। এ সময় ভিয়েতনামের উদাহারণ টেনে বলেন, ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টাই এ খাতে দ্রুত অবদান রাখবে।

সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীর বিক্রম বলেছেন, অর্থনীতির ইতিবাচক পরিবর্তনের মূলে রয়েছে জলজ সম্পদের অবদান।

গ্রন্থটি নিয়ে মন্তব্যকালে ড. আহমদ কাউকাউস বলেছেন, উন্নয়নের মূলে রয়েছে কৃষকদের অক্লান্ত পরিশ্রম। কৃষকদের নিজস্ব উদ্ভাবনী প্রচেষ্টা এবং সরকারের সহযোগিতা- এই নীল বিপ্লবে অনন্য অবদান রেখেছে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে International Food Policy Research Institute-এর কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ড. আখতার আহমেদ, BIDS-এর মহাপরিচালক ড. কে এ এস মোর্শেদ বক্তব্য রাখেন।


সিএনআই’র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।