৫, ডিসেম্বর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ৭ রবিউস সানি ১৪৪১

মেয়ে হত্যার মামলা না নিয়ে, বাবাকে ডাকাতি মামলার আসামি করল ওসি!

পাবনা প্রতিনিধি: পাবনায় মেয়ে হত্যার মামলা না নিয়ে উল্টো ডাকাতির মামলায় বাবাকে ফাঁসানোর অভিযোগ উঠেছে ফরিদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কাশেমের বিরুদ্ধে। হত্যার বিচার ও ওসির অপসারণ দাবি করেছেন ভুক্তভোগী ও স্থানীয়রা।

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনে মেয়ে আশা খাতুনের মৃত্যুর বিচারের আশায় পাবনার ফরিদপুর থানায় মামলা করতে গিয়েছিলেন বাবু। কিন্তু, মামলা না নিয়ে উল্টো তাকে ফাঁসানোর জন্য দেয়া হয়েছে ডাকাতি মামলা।

আশার মৃত্যুর পর নানাবাড়িতেই থাকছে তার মেয়ে আরিকা। যাদের নির্যাতনে মেয়েকে হারাতে হয়েছে, তাদের বিচার চান আশার বাবা-মা।

হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন স্থানীয়রা। এছাড়া, আশার বাবাকে ডাকাতির মামলায় ফাঁসানোর অভিযোগে ওসি আবুল কাশেমের অপসারণ দাবি করেছেন তারা।

তবে, এই বিষয়ে সব অভিযোগ অস্বীকার করে ক্যামেরার সামনে কথা বলতে রাজি হননি অভিযুক্ত পাবনার ফরিদপুর থানার ওসি আবুল কাশেম।

ননদের স্বামী সাইফুল ইসলামের সঙ্গে তার জা জা আঙ্গুরি ও জাহানারা খাতুনের পরকীয়ার কথা জেনে যাওয়ায় গত ২রা সেপ্টেম্বর আশাকে মারধর করে মুখে বিষ ঢেলে দেয় শ্বশুরবাড়ির লোকজন। পরে, রাজশাহী মেডিক্যালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয় ৭ই সেপ্টেম্বর।

ঘটনার পর মামলা না নিয়ে আশার বাবা বাবুর বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ দুটি মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠান ওসি কাশেম। ২৮শে নভেম্বর জামিনে বের হয়ে পাবনার আমলি আদালতে পাঁচজনকে আসামি করে হত্যা মামলা দায়ের করেন বাবু।