১২, ডিসেম্বর, ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১

মারামারির পর চিকিৎসা নিতে ফার্মেসিতে হনুমান!

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মল্লারপর স্টেশন এলাকায় বাচ্চাকে মারধরের বিচার জানাতে থানায় অভিযোগ দেওয়ার পর এবার মারামারি করে ওষুধ নিতে থানায় গেছেন হনুমান। অন্য হনুমানের সঙ্গে মারামারি করে রক্ত ঝরানো আরেকটি হনুমান ফার্মেসিতে গিয়ে ওষুধ নিয়ে সবাইকে অবাক করেছে । স্টেশনে বসে আহত হওয়ার পর একটি গাড়িতে উঠে পড়ে হনুমানটি। অন্য যাত্রীদের গায়ে হাত দিয়ে সে বোঝাতে থাকে, আক্রমণ করবে না। ওষুধ দোকানের মালিক আনাজুল আজিম বলেন, ‘দোকানের সামনে বেঞ্চে বসে অপেক্ষা করছিল হনুমানটি। দোকানের ভিড় একটু কমতেই লাফ দিয়ে কাউন্টারে উঠে কোমরের নিচে ও শরীরের অন্য অংশে ক্ষতস্থানগুলো দেখাতে থাকে। আমার হাত ধরে এমন ভাব করে যেন চিকিৎসা চাইছে।’ দোকানে ওষুধ নিতে এসেছিলেন শক্তিপদ মিস্ত্রি নামে স্থানীয় এক যুবক। তিনিও হাত লাগান জখম হনুমানের ক্ষতে মলম ও ব্যান্ডেজ করায়। ওষুধ লাগিয়ে ব্যান্ডেজ করে দেওয়ার পরেও ক্ষতস্থানগুলো বারবার দেখাতে থাকায় ওই ওষুধ দোকানদারের মনে হয় ব্যথার জন্য হনুমানটি এরকম করছে। কাপে পানি নিয়ে একটি ব্যথা কমার ওষুধও খাওয়ানো হয় তাকে। সঙ্গে চারটি কলা। কিছুক্ষণ বসে থেকে আনাজুলের কাঁধে হাত রেখে দোকানের কাউন্টার থেকে রাস্তায় নেমে ফের একটি স্টেশনগামী গাড়িতে চড়ে বসে সে!