১৬, সেপ্টেম্বর, ২০১৯, সোমবার | | ১৬ মুহররম ১৪৪১

হঠাৎ বারান্দা থেকে ৮০ ফুট নিচে পড়ে গেলেন ছাত্রী

ঝুঁকি নিয়েই করছিলেন যোগ ব্যায়াম। তারই ফাঁকে ঘটে গেল দুর্ঘটনা। যোগ ব্যায়াম করার সময় ৮০ ফুট উপরের বারান্দা থেকে পরে গেলেন এক কলেজছাত্রী। অত দূর থেকে পড়লেও অবশ্য ভাগ্যগুণে বেঁচে যান তিনি। তবে তার শারীরিক অবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা। ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের সান পেড্রোতে। ভারতের গণমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, গত শনিবার শহরের ৬ তলা বিশিষ্ট এক আবাসনের বারান্দায় যোগ ব্যায়াম করছিলেন আলেক্সা টেরাজা নামের ওই কলেজছাত্রী। সেসময়ই হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বারান্দা থেকে ৮০ ফুট নিচে পড়ে যান ২৩ বছর বয়সী ওই ছাত্রী। বারান্দার বাইরের দিকে তার ঝুলন্ত অবস্থার একটি ছবি অনলাইনে ছড়িয়ে পড়েছে। নিউজ.কম.এউ-এর খবরে বলা হয়েছে, আনুমানিক দুপুর ১টা ১০ মিনিটের দিকে ছবিটি তোলা হয়। পিছলে পড়ে ড্রাইভওয়েতে আঘাতের আগে টেরেজার বন্ধু ছবিটি তুলেছিলেন। মেক্সিকান নিউজলেট এল ইম্পেরিয়াল জানিয়েছে, টেরাজাকে দ্রুত নুভো লিওনের কাছের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দেহের অধিকাংশ অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তাকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। চিকিৎসকরা আশঙ্কা করছেন, আলেক্সা টেরাজার মাথা, হাত, পা ও নিম্নাংশের হাড় ভেঙে গেছে। তার হাঁটু এবং গোড়ালি মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তিনি বছর তিনেক হাঁটতে পারবেন না। টেরাজার শরীরের মোট ১১০টি হাড় ভেঙেছে-পরীক্ষায় এমনটাই দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এদিকে ডেইলি মেইলের খবর অনুযায়ী, টেরাজার পরিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রক্তদানের জন্য আবেদন করেছিল। তাতে লাভ হয়েছে। প্রায় শতাধিক রক্তদাতা তার সাহায্যে এগিয়ে এসেছেন। গত সোমবার পর্যন্ত তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।এদিকে ঘটনার পরপরই নুভো লিওনের অ্যাটর্নি-জেনারেল অফিস থেকে তদন্তে দেখা গেছে, ওই বারান্দার কাঠামোগত কোনো ব্যর্থতা নেই। এটা নিছকই একটি দুর্ঘটনা।